অস্ত্র প্রতিযোগিতা নয়, শান্তির বিশ্ব চায় বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৫-১২-২০২১ ১৭:৫৯

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ০৯:৫৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্ব শান্তির জন্য সবাই মিলে জবাবদিহিতামূলক একটি বিশ্বব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, করোনা অতিমারি প্রমাণ করে দিয়ে গেছে কেউই আলাদা নয়। ঢাকায় বিশ্ব শান্তি সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে, পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও সমঝোতার ভিত্তিতে সবার সাথে কাজ করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ। অস্ত্র প্রতিযোগিতায় সম্পদ ব্যয় না করে তা সার্বজনীন টেকসই উন্নয়নে ব্যবহারেরও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিশ্ব শান্তি সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এই আয়োজন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে অনুষ্ঠিত এই বিশ্ব শান্তি সম্মেলনে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, দীর্ঘ ২১ বছরের সংগ্রাম ও আত্মত্যাগের পর সরকার গঠন করেই পার্বত্য চট্টগ্রামে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের অবসান ঘটিয়ে তিনি শান্তি চুক্তি করেছেন।

শেখ হাসিনা হাসিনা বলেন, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শান্তি বজায় রাখতে তার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তাঁর সরকারের কঠোর নীতির কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন,সর্বোচ্চ ত্যাগে স্বাধীনতা অর্জন করা বাঙালি মানবজাতির শান্তির আকাঙ্খার মূল্য অনুধাবন করে। সার্বজনীন শান্তির অঙ্গিকারে এখনই কাজে নামার তাগিদ দেন তিনি।

বিশ্বের ৯১ টি দেশের মানবাধিকারকর্মী, নোবেল বিজয়ী ব্যক্তিত্ব, কবি, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও বুদ্ধিজীবীসহ বিশিষ্টজনরা দুই দিনের এই বিশ্ব শান্তি সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন।

/admiin