ফেনীতে আইন লঙ্ঘন করে বহুতল ভবন

প্রকাশিত: ০৬-১২-২০২১ ০৮:২৬

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ০৯:৫৮

ফেনী সংবাদদাতা: ফেনী পৌর এলাকায় ‘ইমারত আইন লঙ্ঘন করে একের পর এক গড়ে উঠছে বহুতল ভবন। যত্রযত্র ভবন নির্মাণ করায় বিভিন্ন সড়কে ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় বিপদে পড়ার আশঙ্কা পৌরবাসীর। তাদের অভিযোগ, কর্তৃপক্ষের নজরদারী না থাকায় এসব অনিয়ম হচ্ছে। তবে অনিয়মের খবর পেলে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন পৌর কর্তৃপক্ষ।

ফেনী পৌরসভায় ১৮টি ওয়ার্ডে ইমারত আইনের তোয়াক্কা না করেই নির্মিত হচ্ছে বহুতল ভবন। পৌরসভা থেকে নকশা পাশ করিয়েই শুরু হয় ভবন নির্মাণের কাজ। কিন্তু ভবন তৈরির সময় তা মানা হচ্ছে না। পৌর কর্তৃপক্ষের নজরদারি না থাকায় এসব অনিয়ম হচ্ছে বলে দাবি ভুক্তভোগীদের।

পৌরবাসী জানান, এভাবে অপরিকল্পিতভাবে ভবন নির্মাণ কাজ চলতে থাকলে হুমকির মুখে পড়বে এই শহর ও এর বাসিন্দারা। সড়কে ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স চলাচলে হবে বাধাগ্রস্ত। থাকে ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কাও।

পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আজিজুর রহমান জানালেন, ইমারত আইন লঙ্ঘন করায় এরইমধ্যে কয়েকটি ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এদিকে, পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী জানালেন, ভবন নির্মাণে অনিয়মের খবর পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ভবন নির্মাণে অনিয়ম ঠেকাতে পৌর কর্তৃপক্ষের কঠোর হস্তক্ষেপ চাইছেন ফেনী শহরের বাসিন্দারা। এর মধ্য দিয়ে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম একটি পরিকল্পিত নগর উপহার পাবে বলে আশাবাদী তারা।

/admiin