শাহজালাল বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষায় হয়রানি

প্রকাশিত: ২৭-০১-২০২২ ১৪:৩১

আপডেট: ১৪-০২-২০২২ ১০:১৬

রীতা নাহার: শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষা করাতে হয়রানি আর অব্যবস্থাপনার অভিযোগ যাত্রীদের। ৬/৭ ঘন্টা অপেক্ষা করতে হলেও সেখানে যাত্রী ও স্বজনদের বসবার কোন ব্যবস্থা নেই। টার্মিনালের ভেতরে যাত্রীর চাপে স্বাস্থ্যবিধিও মানা সম্ভব হয় না। এদিকে, তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণ কাজে নিয়োজিত কয়েকশ’ শ্রমিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী যাত্রীদের যাত্রার আগে বিমানবন্দরে আরটিপিসিআর মেশিনে করোনা পরীক্ষা করাতে হয়। করোনা নেগেটিভ হলেই কেবল উড়োজাহাজে উঠবার অনুমতি মেলে। এই পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে পার্কিং এলাকায়। যাত্রার সময়ের ৬ ঘন্টা আগে সেখানে নমুনা দেয়ার কথা থাকলেও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা যাত্রী ও তাদের স্বজনরা ১০-১২ ঘন্টা আগেই সেখানে জড়ো হন। এই দীর্ঘ সময় সেখানে নানা অব্যবস্থাপনার অভিযোগ তাদের।

এদিকে রানওয়ের কাজ চলায় রাত ১২টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ থাকার ঘোষণা দেয়া হলেও কোনও ফ্লাইট বন্ধ রাখা হচ্ছে না। ফলে বিমানবন্দরের ভেতরেও যাত্রীর চাপে নানা সমস্যা হচ্ছে।

তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় যাত্রীর সাথে স্বজনদের আসা নিরুৎসাহিত করছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, তৃতীয় টার্মিনালের কাজ করছে প্রায় ১০ হাজার শ্রমিক। এদের কয়েকশ’ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এটা বাড়তি দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সংক্রমণ রোধে যাত্রী ও স্বজন সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।
 

lamia/habib