রুশ সৈন্যের যুদ্ধাপরাধের বিচার করছে ইউক্রেন

প্রকাশিত: ১৪-০৫-২০২২ ১০:৫৫

আপডেট: ১৪-০৫-২০২২ ১০:৫৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাশিয়ার হামলা শুরুর পর প্রথমবারের মতো ইউক্রেন যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু করেছে। উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় সুমি অঞ্চলে একজন বেসামরিক নাগরিককে গুলি করে হত্যা করার জন্য অভিযুক্ত এক রাশিয়ান সৈন্যের প্রথম যুদ্ধাপরাধের বিচার করছে ইউক্রেন। দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে যাবজ্জীবন কারাভোগ করতে হবে। 

বিবিসি জানিয়েছে, ভ্লাদিম শিশিমারিন নামে ২১ বছর বয়সী ওই রুশ সৈন্যের বিরুদ্ধে সুমি অঞ্চলে চুরি করা গাড়ির জানালা দিয়ে ৬২ বছর বয়সী এক নিরস্ত্র ইউক্রেনীয়কে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। শুক্রবার কিয়েভে ভ্লাদিম শিশিমারিনের প্রাথমিক শুনানি হয়েছে। 

যুদ্ধপরাধের মুখোমুখি করা হলেও শিশিমারিন কীভাবে গ্রেফতার হয়েছেন তা জানা যায়নি। তার বিরুদ্ধে কী ধরনের প্রমাণ রয়েছে তাও স্পষ্ট নয়। শুক্রবার বিচারকাজ চলার সময় তিনি নিজের ব্যাপারে কোনও আর্জি জানাতে পারেননি। আগামী সপ্তাহে আবারও প্রসিকিউটরদের সামনাসামনি হবেন তিনি। 

ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কিয়েভ ৪১টি যুদ্ধাপরাধের মামলা প্রস্তুত করছে। ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল বলেছেন, রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের মধ্যে রয়েছে বেসামরিক নাগরিকদের হত্যা, ধর্ষণ এবং লুটপাট। যদিও, রাশিয়া বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্যবস্তু করার কথা অস্বীকার করেছে এবং বিচারের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি।

AAJ/ramen