চালের দাম বেড়েছে, মিল মালিকরা দায়ী?

প্রকাশিত: ২১-০৫-২০২২ ২০:০২

আপডেট: ২১-০৫-২০২২ ২০:৩৩

তানজিলা নিঝুম: বোরো ধানের এই মৌসুমে চালের দাম কম হওয়ার কথা থাকলেও বাজারের চিত্র ভিন্ন। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে সবধরনের চালের দাম কেজিতে ২ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে। বিক্রেতারা বলছেন, মিল মালিকরা সিন্ডিকেট করে চালের সংকট তৈরি করে দাম বাড়াচ্ছে। তাই খুচরা বাজারে নয়, সরকারকে মিল মালিকদের উপর নজরদারি বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তারা। 

এখন বোরো ধানের মৌসুম। এই মৌসুমে উৎপাদিত চাল দিয়ে বছরের ৫৫ শতাংশ চাহিদা মেটানো হয়। কিন্তু এ বছর ভরা মৌসুমে বাজারে চালের সরবরাহ কমে গেছে। সময়মতো মিল মালিকরা চাল সরবরাহ করতে পারছেন না। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে সবধরনের চালের দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ২ থেকে ৬ টাকা। 

বাজারে মৌসুমের চাল আসতে শুরু করার কিছুদিন পর থেকেই সরবরাহ কমে গেছে। মিল থেকে বাজারে নিয়মিত ও পর্যাপ্ত চাল সরবরাহ করা হচ্ছে না। মিল মালিকরা ধান না পাওয়া ও শ্রমিকের সংকটের অজুহাত দেখিয়ে চাল কম সরবরাহ করছেন বলে অভিযোগ পাইকারী ও খুচরা বিক্রেতাদের। 

মিল মালিকরা সিন্ডিকেট করে চালের সঙ্কট তেরি করছে বলে অভিযোগ করে মিল পর্যায়ে সরকারি নজরদারির দাবি জানালেন বিক্রেতারা। 

ভোক্তারা বলছেন, এভাবে একের পর এক নিত্যপণ্যের দাম বাড়ায় স্বল্প আয়ের মানুষকে টিকে থাকতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। 

সাধারণ মানুষের ভোগান্তি কমাতে সরকারকে চালের দামের লাগাম এখুনি টেনে ধরার দাবি জানান তারা। 

 

Nijhum/joy