নাটক পাকে বিপাকে’র মঞ্চায়ন

প্রকাশিত: ২৩-০৫-২০২২ ২২:৫৪

আপডেট: ২৩-০৫-২০২২ ২৩:১৭

বিনোদন ডেস্ক: মঞ্চায়িত হলো পদাতিক নাট্য সংসদের প্রযোজনা ‘পাকে বিপাকে’। সন্ধ্যায় রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটারে এটি মঞ্চায়িত হয়। মনোজ মিত্রের রচনায় নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন সঞ্জীব কুমার দে। জমিদারি আমলে গরীব শোষিত মানুষের জীবনচিত্র তুলে ধরা হয়েছে এই প্রযোজনায়। 

অন্ধকার রাতে গ্রামের পথ ধরে গান গেয়ে এগিয়ে চলেছে হাবলা জনার্দন। হঠাৎ তার আর্তচিৎকারে কেঁপে চারপাশ। যেন বিষাক্ত সাপ ছোবল দিয়েছে তাকে। 

সাপের কামড়ের জ্বালায় মনে পুষে রাখা ক্রোধ মেটাতে জমিদার নবকৃষ্ণের নানা কুকীর্তির বয়ান করতে থাকে হাবলা জনার্দন। ছুটে যায় দূরে এক লণ্ঠনের আলোর দিকে, যেখানে চাদর মুড়ি দিয়ে বসে আছেন নবকৃষ্ণ। 

এভাবেই শুরু হয় মনোজ মিত্রের রচনায় ‘পাকে বিপাকে’ নাটকের কাহিনী। চারটি চরিত্রের মধ্য দিয়ে নাটকটিতে গরিবদের শোষণ ও বঞ্চনার চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

নাটকটিতে দেখানো হয়, জমিদার নবকৃষ্ণ ভয়ে অস্থির, বর্গাদার পান্তু দাস তার ধান লুট করার পরিকল্পনা ঠেকিয়ে দেয় কিনা, সেই চিন্তায়। ঘটনার ধারাবাহিকতায়, মঞ্চে আবির্ভূত হয় জমিদারের রক্ষিতা দুর্বা। নবকৃষ্ণের বন্দুক লুট করে পান্থকে সাহায্য করার চেষ্টা করে সে। তবে চতুর জমিদারের কাছে ধরা পড়ে যায় দূর্বা। 

এক পর্যায়ে, শোষণ আর অত্যাচারে অতিষ্ঠ জনার্দন ভয়ংকর হয়ে ওঠে। তার হামলায় পরাস্ত হয় জমিদার নবকৃষ্ণ। এভাবেই শেষ হয় নাটক ‘পাকে বিপাকে’। 

 

MHS/shamim