উপকূলে আজও টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ হয়নি

প্রকাশিত: ২৫-০৫-২০২২ ০৮:২৫

আপডেট: ২৫-০৫-২০২২ ১২:৪৯

খুলনা সংবাদদাতা: খুলনা জেলার সুন্দরবন সংলগ্ন পাইকগাছা, কয়রা, দাকোপসহ নয়টি উপজেলার মানুষ ঝড়, জলোচ্ছ্বাস, অতিবৃষ্টি ও নদীভাঙ্গনসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করে বসবাস করে আসছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রেহাই পেতে উপকূলবাসির দীর্ঘদিনের দাবি, টেকসই বেড়ি বাঁধ নির্মাণ। কিন্তু তা পূরণ হয়নি। স্থানীয়রা বললেন, দুর্যোগ এলে অনেক আশ্বাসই পাওয়া যায়, যার বাস্তবায়ন হয় না। 

১৯৭০ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশে যে কয়টি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনেছে তার মধ্যে সিডর, আইলা, বুলবুল আর ২০২১ সালের ইয়াস ছিল বেশ শক্তিশালি।  এর প্রভাবে মানুষের জীবনহানি এবং বাড়ি-ঘর, রাস্তাঘাট, ফসলসহ পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা পেতে উপকূলবাসির দীর্ঘদিনের দাবি টেকসই বেড়ি বাঁধ নির্মণ। যা আজও বাস্তবায়ন হয়নি।

তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা আসন্ন বর্ষা মৌসুমের আগেই ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ গুলো মেরামত করার আশ্বাস দিলেন। আর সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং সচেতনতার মাধ্যমে প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করা এবং ক্ষয়ক্ষতি কমানো সম্ভব বলে জানালেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম। 

সবশেষ ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের পর খুলনা জেলায় এ পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ মেরামত করা হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে আরো ৪৫ কিলোমিটার।

kanij/sharif