কৃষিজমিতে ইটভাটায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পরিবেশ

প্রকাশিত: ২৫-০৫-২০২২ ০৮:৩৪

আপডেট: ২৫-০৫-২০২২ ০৯:৪০

নরসিংদী সংবাদদাতা: নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় কৃষিজমিতে গড়ে উঠছে অসংখ্য ইটভাটা। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে জমি, রাস্তাঘাট ও পরিবেশ। ইটভাটার কালো ধোঁয়া ও ধুলোবালির কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে এলাকার মানুষ। প্রতিবাদ করলে এলাকাবাসীকে হুমকিও দেয়া হচ্ছে। 

পরিবেশ অধিদপ্তরের হিসেব মতে, নরসিংদী জেলায় ইটভাটার সংখ্যা ১৫০টি। এরমধ্যে ২৫টি অবৈধ। পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নে ১৪টি ইটভাটার মধ্যে ৯টি বৈধ ও ৫টি অবৈধ। তবে স্থানীয়রা বলছে, অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ইটভাটার সংখ্যা আরও বেশি। এদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় অবৈধ ইটভাটার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।  

ইটভাটার কালো ধোঁয়া ও ধুলার কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে স্থানীয়রা। অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে জনজীবন। ট্রলি দিয়ে দিন-রাত মাটি ও ইট পরিবহনের কারণে ভেঙ্গে পড়ছে রাস্তাঘাট। কৃষিজমি নষ্ট হচ্ছে। ভাটা মালিকদের এসব আগ্রাসনের প্রতিবাদ করলে এলাকাবাসী ও কৃষকদের দেয়া হয় হুমকি। এদিকে, অনাপত্তিপত্র বাতিল করে জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরে অবৈধ ইটভাটাগুলোর তালিকা পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন নরসিংদী পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মুহম্মদ হাফিজুর রহমান। 

নতুন ইটভাটা স্থাপনের ক্ষেত্রে তদারকি বাড়ানো হয়েছে এবং জরিমানা করাসহ অবৈধ ইটভাটা বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে বলে জানালেন জেলা প্রশাসক আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খান। নিয়মনীতি না মেনে ইটভাটা স্থাপন করা না হলে কৃষিজমি, জীববৈচিত্র্য ও পরিবেশ রক্ষা করা সম্ভব নয় বলে মনে করেন স্থানীয়রা।

lamia/sharif