মুক্তি পেলেন জাপানের রেড আর্মির সহ-প্রতিষ্ঠাতা

প্রকাশিত: ২৮-০৫-২০২২ ২১:৫৪

আপডেট: ২৮-০৫-২০২২ ২১:৫৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ বছরেরও বেশি সময় পর কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন জাপানের রেড আর্মির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফুসাকো শিজেনোবু। ১৯৭৪ সালে দূতাবাস অবরোধের অভিযোগে তাকে এই সাজা দেয় জাপানের একটি আদালত। তবে হামলায় সরাসরি অংশ না নিলেও হামলায় সমন্বয়কারী হিসেবে অভিযুক্ত হন তিনি। 

কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর ফুসাকো শিজেনোবু নিজেদের লক্ষ্য অর্জনে ‘নিরপরাধ মানুষের ক্ষতি’ করায় সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। ১৯৭২ সালে তেল আবিবের লোদ বিমানবন্দরে হামলায় ২৬ জনের মৃত্যুর জন্যও অনুশোচনা প্রকাশ করেন তিনি। বিবিসি জানিয়েছে, ২০০০ সালে জাপানের ওসাকা শহর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার আগ পর্যন্ত প্রায় কয়েক দশক ধরে আত্মগোপনে ছিলেন ফুসাকো শিজেনোবু। 

একসময় রেড আর্মি বড় বড় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছিল। ইসরাইলের একটি বিমানবন্দরে প্রাণঘাতী হামলা চালানো ছাড়াও লোকজনকে অপহরণ ও ছিনতাইয়ের মতো একাধিক ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল এই রেড আর্মি। 

১৯৭৪ সালে নেদারল্যান্ডসে অবস্থিত ফরাসি দূতাবাসে হামলার দায়ে ফুসাকো শিজেনোবুকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রেড আর্মির তিন সশস্ত্র যোদ্ধা প্রায় ১০০ ঘণ্টা ধরে ফরাসি রাষ্ট্রদূত ও আরও কয়েকজনকে জিম্মি করে রেখেছিলেন। রেড আর্মির এক সদস্যকে ফ্রান্স মুক্ত করে দেওয়ার পর ওই গোষ্ঠী সিরিয়ায় চলে যায় এবং জিম্মিদশার অবসান ঘটে। ২০০১ সালে ফুসাকো শিজেনেবু রেড আর্মি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন এবং আইনের মাধ্যমে নতুন করে লড়াই শুরুর ঘোষণা দেন।

NHK/sharif