গৃহবধূর চুল কেটে দিলেন চেয়ারম্যান!

প্রকাশিত: ১৬-০৬-২০২২ ০৯:৫৪

আপডেট: ১৬-০৬-২০২২ ১০:৪১

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা: ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জের বৈরচুনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে মারপিট করে মাথার চুল কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পীরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীর স্বামী। তবে অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন চেয়ারম্যান। বিষয়টি তদন্ত করে সঠিক বিচারের আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ। 

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার ইন্দ্রইল গ্রামের বাসিন্দা হাসান আলীর স্ত্রীর ওপর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, বৈরচুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তেলিনা সরকার হিমু তাকে মরধরের পর মাথার চুল কেটে দিয়েছেন। ভুক্তভোগীর অভিযোগ, গত রোববার রাত ১০টার দিকে স্থানীয় বাসিন্দা ফারুক ও রুবেলসহ বেশ কয়েকজন তার বাড়িতে আসেন। নানা অভিযোগ ও শালিশের কথা বলে তারা তাকে চেয়ারম্যান হিমুর কাছে নিয়ে যান। 

এসময় চেয়ারম্যানসসহ কয়েকজন তাকে মারধর করেন এবং মাথার চুল কেটে দেন। এছাড়া বেশ কয়েকটি কাগজে স্বাক্ষর নেন তার কাছে থেকে। স্বামীসহ তাকে ঘরবন্দি করে রাখেন তিনদিন। এ ঘটনা কাউকে না জানাতে হুমকিও দেন ওই চেয়ারম্যান। নির্যাতনে গুরুতর অসুস্থ হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন ভুক্তভোগী। 

এ ঘটনায় পীরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীর স্বামী।

তবে, নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত চেয়ারম্যান।

এদিকে, বিষয়টি সুষ্ঠুভাবে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীব। 

AR/ramen