বিএম ডিপোতে আগুন, কর্তৃপক্ষের অবহেলার প্রমাণ মিলেছে

প্রকাশিত: ০৬-০৭-২০২২ ২৩:২০

আপডেট: ০৬-০৭-২০২২ ২৩:২০

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড, বিস্ফোরণ ও প্রাণহানির জন্য ডিপো কর্তৃপক্ষ ও তদারকি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতি ছিল বলে প্রতিবেদন দিয়েছে তদন্ত কমিটি। বিভাগীয় কমিশনারের করা এই কমিটির প্রতিবেদনে সংশ্লিষ্টদের শাস্তির পাশাপাশি এমন দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ২০ দফা সুপারিশ করা হয়েছে। 

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বেসরকারি বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের কারণ খুঁজতে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যদের কমিটি গঠন করেছিল চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার। 

ঘটনার এক মাস পর বুধবার প্রতিবেদন জমা দিয়েছে তদন্ত কমিটি। এতে অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের কারণ হিসেবে ডিপো কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট সরকারি তদারকি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতিকে দায়ি করা হয়। সংশ্লিষ্ট আইন সংশোধনসহ ২০ দফা সুপারিশ দিয়েছে কমিটি। 

কমিটির প্রধান মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, অফ ডক পরিচালনার জন্য ২৫টি প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র নেয়ার বিধান আছে। কিন্তু বিএম ডিপো তা মানেনি।

গত চৌঠা জুন বিএম কন্টেইনার ডিপোতে আগুন লাগে। আগুনে পুড়ে ও বিস্ফোরণে প্রাণ যায় ৫১ জনের। এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ এনে বিএম কনটেইনার ডিপোর ৮ কর্মকর্তাকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ, যার তদন্ত চলছে।

 

Naeem/habib