টাঙ্গাইলে অটোরিকশা ও ইজিবাইকের দৌরাত্ম্য

প্রকাশিত: ০৭-০৭-২০২২ ০৮:৪২

আপডেট: ০৭-০৭-২০২২ ১১:০৫

টাঙ্গাইল সংবাদদাতা: ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা এবং ইজিবাইকের দৌরাত্ম্যে নিত্যদিনের যানজটে নাকাল টাঙ্গাইল পৌরবাসী। যানজটের কারণে অল্পদূরের গন্তব্যে যেতেও বাড়তি সময় লাগছে শহরবাসীর। ফলে ভোগান্তি পোহাচ্ছে যাত্রীরা। তাদের অভিযোগ, পৌর কর্তৃপক্ষের উদাসিনতার কারণে যানজট সমস্যার সমাধান হচ্ছে না। এবিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার দাবি শহরবাসীর।

২০১০ সালে টাঙ্গাইলে প্রথম ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল শুরু হওয়ার পরের বছর নিবন্ধন দেওয়া শুরু করে পৌর কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে শহরে নিবন্ধিত অটোরিকশার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৪ হাজার। তবে নিবন্ধিত অটোরিকশার চেয়ে অনুমোদনহীন গাড়ির সংখ্যাই বেশি। ফলে প্রতিনিয়ত যানজট সৃষ্টি হচ্ছে শহরে। 

অল্প পথের গন্তব্যে যেতেও অনেক সময় লাগছে। এতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের। শহরবাসীর অভিযোগ, পৌর কর্তৃপক্ষের উদাসিনতায় যানজট নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। 

অটোরিকশা চালকরা জানান, অনিবন্ধিত অটোরিকশার সংখ্যা বৃদ্ধি ও চালকদের অনেকেই ট্রাফিক আইন না মানায়, শহরে যানজট লাগছে। 

টাঙ্গাইল ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক এসরাজুল হক জানান, যত্রতত্র যাত্রী ওঠা-নামা ও ইজিবাইকগুলো শহরের প্রধান সড়কগুলোতে উঠতে না দেওয়ায়, পৌর এলাকায়  যানজট হচ্ছে।

যানজট নিরসনে সাতদিনের মধ্যে ইজিবাইক লাল ও হলুদ রঙ করে দুই শিফটে চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন পৌর মেয়র সিরাজুল হক আলমগীর। দ্রুত যানজট নিরসন করে পৌর কর্তৃপক্ষ শহরবাসীকে স্বস্তি দেবে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

AR/ramen