ঘর পেয়েছেন জলদস্যুরাও

প্রকাশিত: ২৪-০৭-২০২২ ১৪:০৯

আপডেট: ২৪-০৭-২০২২ ২২:২৯

আশরাফুল আলম আকাশ: এক সময়ের দুর্ধর্ষ জলদস্যু হান্নান সরদার। ফিরতে চেয়েছেন স্বাভাবিক জীবনে। সরকার তাকে শুধু সেই সুযোগই তৈরি করে দেয়নি, দিয়েছে একটি নিশ্চিত জীবন আর স্থায়ী আবাসন। প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পেয়েছেন হান্নান সরদার। এখন সুনাগরিক হয়ে বাকি জীবন কাটাতে চান দেশের কল্যাণে। 

হান্নান সরদার, জলদস্যুর জীবন কাটিয়েছেন সুন্দরবনের গহীন জঙ্গলে। ফেরারি জীবনে এক সময় প্রতিনিয়তই তাড়া করে ফিরতো মৃত্যু আতঙ্ক। খেয়ে না খেয়ে কাটিয়েছেন দিনের পর দিন, রাতের পর রাত। 

এক সময় তিনি বুঝতে পারেন ভুল পথে হেঁটেছেন। সরকারের বদৌলতে পেয়েছিলেন স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার সুযোগ। এবার পেলেন স্থায়ী আবাসন। আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের তৃতীয় পর্যায়ের দ্বিতীয় দফায় বাগেরহাট জেলার রামপালে পেয়েছেন সেই শান্তির নীড়। 

বাড়িঘর তো দূরের কথা, লোকালয়ে প্রবেশের কথাও কখনো ভাবেনি হান্নান সরদার। এখন জমিসহ একটি ঘরের মালিক। জীবনকে এভাবে বদলে দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। 

স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা কোন জলদস্যু যেন ভূমি ও গৃহহীন না থাকে তা নিশ্চিত করতে স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। 

হান্নান সরদারের মতো এখন পর্যন্ত ১৩ জন জলদস্যু বাগেরহাট জেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়েছেন।

Akash/habib