সিনেমা হল মুখী হচ্ছে দর্শকরা

প্রকাশিত: ৩০-০৭-২০২২ ২০:৩৭

আপডেট: ৩০-০৭-২০২২ ২০:৩৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া কিছু ভালো চলচ্চিত্র দর্শকের সিনেমা হল মুখী করেছে। এতে বাংলা চলচ্চিত্রের স্বর্ণালীযুগ ফিরে পাবার স্বপ্ন দেখছে হল সংশ্লিষ্টরা। ঈদে মুক্তি পাওয়া পরাণ, দিন দ্যা ডে এবং সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া হাওয়া চলচ্চিত্রটি দর্শকদের করেছে হলমুখী। ভালোমানের এমন সিনেমা তৈরি হলে আবারো বিনোদনের সবচেয়ে বড় মাধ্যম হয়ে উঠবে বাংলা চলচ্চিত্র।

বাংলা চলচ্চিত্রের দর্শকদের মনে হাওয়া লেগেছে। এই হাওয়া শুধু গা ভাসিয়ে দেবার জন্য নয় বরং বাংলা চলচ্চিত্রের যে তরিটি ডুবে যেতে বসেছিলো তাকে তীরে টেনে আনার প্রচেষ্টা।

গভীর সমুদ্রের অজানা সব রহস্য আটজন মাঝিমাল্লা আর একজন নারীর চরিত্রর মাধ্যমেই নিখুঁতভাবে ‘হাওয়া’ চলচ্চিত্রে চিত্রায়িত করেছে পরিচালক মেজবাউর রহমান সুমন। আর তাতেই মজেছে বাংলার সিনেমা প্রেমীরা। কি আছে রহস্যময় গভীর সমুদ্রে, তা জানার জন্যই সিনেমা হলগুলোতে গিয়ে ভীড় করছে সব বয়সী দর্শক। এই আগ্রহটাও তৈরি করে হাওয়া টিম। প্রথমে ছবির পোস্টার, পরে ট্রেইলার এবং সব শেষ সাদা সাদা কালা কালা গানটি দর্শকদের আগ্রহের পারদটা তুঙ্গে তুলেছে।

মুক্তির আগেই দর্শকদের কাছে জনপ্রিয় হওয়া সিনেমাটি মুক্তির পর বাঁধভাঙ্গা উন্মাদনা তৈরি করে। আলোচনায় এসেছে সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলোর নির্মাণশৈলি, কলাকুশলিদের অভিনয় এবং গল্পের গভীরতা। সব সিনেপ্লেক্সসহ ৩০ টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়া হাওয়া’র টিকেট পাওয়াই এখন ভার।

বাংলা চলচ্চিত্রের এমন জনপ্রিয়তা দেখা যাচ্ছে ঈদের সময় থেকেই। ঈদে মুক্তি পাওয়া তিনটি চলচ্চিত্রই প্রসংশা কুড়িয়েছে সিনেম প্রেমীদের। ব্যবসাসফল করেছে হল মালিকদের। ভালো মানে এমন সিনেমা দর্শকদের হলে ফেরাবে বলেই মনে করেন হল সংশ্লিষ্টরা।

দর্শকরা হলে এসে সিনেমা দেখলেই সার্থকতা পাবে চলচ্চিত্র অঙ্গন। তৈরি হবে ভালো মানের আরো সিনেমা।

/prabir