টোল আদায়ে যমুনা সেতুকে ছাড়াল পদ্মা সেতু

প্রকাশিত: ০৩-০৮-২০২২ ১৬:৫৪

আপডেট: ০৩-০৮-২০২২ ১৬:৫৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৯৯৮ সালের জুন মাসে যমুনা নদীতে বঙ্গবন্ধু সেতুর উদ্বোধন করা হয়। চালুর পর জুলাই মাসে যমুনা সেতুতে টোল আদায় হয়েছিল ৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা। অন্যদিকে গত ২৫শে জুন চালু হয় বহুল কাক্সিক্ষত পদ্মা সেতু। উদ্বোধনের পর গত জুলাই মাসে এই সেতু থেকে টোল আদায় হয় ৭৮ কোটি ৫০ লাখ ১৯ হাজার ৪০০ টাকা। একই মাসে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল উঠেছে ৬৬ কোটি ৩২ লাখ ১১ হাজার ৯৫০ টাকা। এই হিসেবে টোল আদায়ে যমুনা সেতুকে ছাড়িয়ে গেছে পদ্মা সেতু। সেতু কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানিয়েছে।

যদিও পদ্মা সেতুর চেয়ে বেশি যানবাহন পার হয়েছে বঙ্গবন্ধু সেতুতে। জুলাইয়ে পদ্মা সেতু পার হয়েছে ৫ লাখ ৮৭ হাজার ২০টি যানবাহন। একই মাসে বঙ্গবন্ধু সেতু ব্যবহার করেছে ৭ লাখ ৮০ হাজার ১০১টি যানবাহন। তবে এর বড় অংশই মোটরসাইকেল। দুর্ঘটনা এড়াতে উদ্বোধনের দু'দিন পর থেকেই পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল পারাপার বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বঙ্গবন্ধু সেতুর তুলনায় পদ্মায় টোল হার প্রায় দ্বিগুণ হওয়ায় যানবাহনের সংখ্যা কম হলেও পদ্মা সেতুতে টোল এসেছে বেশি।

৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার দীর্ঘ বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৩২ আসনের বেশি বাসের টোল ১ হাজার টাকা। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটারের পদ্মা সেতুতে একই ধরনের বাসের টোল ২ হাজার টাকা। বঙ্গবন্ধু সেতুতে মিনিবাসের টোল ৭৫০ টাকা। পদ্মা সেতুতে তা ১ হাজার ৪০০ টাকা।

বঙ্গবন্ধু সেতুতে মাইক্রোবাসের টোল ৬০০ টাকা। পদ্মা সেতুতে এই গাড়ির টোল ১ হাজার ৩০০ টাকা। প্রাইভেটকারের টোল ৭৫০ টাকা। বঙ্গবন্ধু সেতু পার হতে প্রাইভেটকারকে দিতে হয় ৫৫০ টাকা। পণ্যবাহী যানেও পদ্মা সেতুর টোল প্রায় দ্বিগুণ। চার এক্সেলের ট্রেইলার পদ্মা সেতু পার হতে টোল ৬ হাজার টাকা। যমুনা সেতুতে তা ৩ হাজার টাকা। বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ বছরে মাসওয়ারি হিসাবে গত ডিসেম্বরে রেকর্ড ৬৬ কোটি ৪১ লাখ টাকা টোল আদায় হয়। গেলো জুলাইয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টোল ওঠে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে ৩১ জুলাই পর্যন্ত ৭ হাজার ২৬৪ কোটি ৮৬ লাখ টাকা টোল আদায় হয়েছে। যদিও এখনও সেতু নির্মাণে নেওয়া বিদেশি ঋণ শোধ হয়নি। ২০৩৪ সাল পর্যন্ত কিস্তি টানতে হবে।

পদ্মা সেতুতে জুলাই মাসে দৈনিক গড়ে ১৮ হাজার ৯৩৬টি করে যানবাহন চলেছে। সেতুর সমীক্ষা অনুযায়ী, ২০২৫ সালে দৈনিক গড়ে ৪১ হাজার ৫৫০ যানবাহন চলবে। গত ৮ জুলাই সর্বোচ্চ ৩১ হাজার ৭২৩টি গাড়ি পদ্মা সেতু পারাপার হয়। 

জুলাইয়ে মাওয়া প্রান্ত দিয়ে পার হওয়া ২ লাখ ৯৪ হাজার ৬১২টি গাড়ি থেকে টোল এসেছে ৪০ কোটি ৪৮ লাখ ৫৩ হাজার ৩০০ টাকা। জাজিরা প্রান্ত দিয়ে পারপার হওয়া ২ লাখ ৯২ হাজার ৪০৮ গাড়ি থেকে আদায় হয়েছে ৩৮ কোটি ১ লাখ ৬৬ হাজার ১০০ টাকা।

প্রক্ষেপণ অনুযায়ী, প্রথম বছরে পদ্মা সেতুতে ৫৪৩ কোটি টাকা টোল আদায় হবে। তবে শেষ পর্যন্ত এর বেশি টোল আদায় হতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। ৩৫ বছরে ১ লাখ ১ হাজার ৩২৪ কোটি টাকা টোল উঠেবে। কিস্তি, ভ্যাট ও আয়কর, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ, টোল আদায়ের খরচ ও সংস্কারের ব্যয় মিটিয়ে ৩৫ বছরে ছয় হাজার কোটি টাকার বেশি মুনাফা দেবে পদ্মা সেতু।

 

MNU/shimul