হত্যা ও গুমের পথ বেছে নিয়েছে সরকার : ফখরুল

প্রকাশিত: ০৪-০৮-২০২২ ১৪:৪৪

আপডেট: ০৪-০৮-২০২২ ১৬:৩৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, সরকার হত্যা ও গুমের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। আজ বৃহস্পতিবার (চৌঠা আগস্ট) রাজধানীর নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ভোলা জেলা ছাত্রদল নেতার জানাজার পর মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন। এ সময় তিন দিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি। এদিকে, ভোলায় স্থানীয় বিএনপি আজ সকাল সন্ধ্যা হরতাল ডাকলেও বেলা ১২টায় তা প্রত্যাহার করা হয়।

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নূরে আলমের জানাজায় অংশ নিতে বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হন হাজারো নেতাকর্মী। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নজরদারি মধ্যেও নয়াপল্টনের ভিআইপি রোডের এক পাশ বন্ধ করে দেন তারা। 

বেলা একটার দিকে নূরে আলমের মরদেহ পৌঁছালে ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিএনপির নেতাকর্মীরা। জানাজায় অংশ নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন। আগামী ৬ই আগস্ট ছাত্রদল, ৭ই আগস্ট কৃষকদল ও ৮ই আগস্টে যুবদল ঢাকায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে। 

এসময় মির্জা ফখরুল বলেন, একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করে সরকার হত্যা ও গুমের পথ বেছে নিয়েছে। তবে নেতাকর্মীদের ধৈর্য্য ধরার আহান জানান মির্জা ফখরুল।

এদিকে নূরে আলমের মৃত্যুর ঘটনায় স্থানীয় বিএনপি আজ ভোলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডাকে। সকালে শহরের মহাজন পট্টি জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে মিছিল করেছে নেতাকর্মীরা। সন্ধ্যা পর্যন্ত হরতাল ঘোষণা করলেও বেলা ১২টায় তা প্রত্যাহার করে জেলা বিএনপি।

GM/joy