শ্রীলংকা যাচ্ছে চীনের পর্যবেক্ষণ জাহাজ

প্রকাশিত: ০৫-০৮-২০২২ ১৯:৪৬

আপডেট: ০৫-০৮-২০২২ ১৯:৪৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে চলতি মাসেই শ্রীলঙ্কা উপকূলে পৌঁছাবে চীনের জাহাজ। আগামী ১১ থেকে ১৭ই আগস্টের মধ্যে জাহাজটি শ্রীলঙ্কার দক্ষিণ প্রান্তের হামবানতোতা বন্দরে এসে নোঙ্গর করবে। এদিকে সীমান্ত সংঘাতের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টির ওপর কড়া নজর রাখছে ভারত।

এ বিষয়ে শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নালিন হেরাথ জানান, এটি একটি ‘রুটিন মহড়া’। ভারতের উদ্বেগের বিষয়টি সম্পর্কে শ্রীলঙ্কা অবহিত রয়েছে।

হেরাথ আরও জানিয়েছেন, ভারত, চীন, রাশিয়া, জাপানের জাহাজ তাদের জলসীমানায় ঢোকার অনুমতি চাইলে, তা অনতিবিলম্বে দিয়ে দেওয়া হয়। শুধুমাত্র পরমাণু অস্ত্র বহনকারী জাহাজকে আটকানো হয়।

হামবানতোতা বন্দরে কিছুদিনের জন্য চীনের জাহাজ ইউয়ান ওয়াং-৫ নোঙ্গর করতে অনুমতি চেয়েছে বেইজিং। শ্রীলঙ্কার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জাহাজটি পরিকাঠামোগত দিক থেকে খুবই উন্নত। শুধুমাত্র পর্যবেক্ষণের উদ্দেশ্যেই চিনের এই জাহাজকে এখানে নোঙ্গর করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

তবে শ্রীলঙ্কার কথায় আশ্বস্ত হতে পারছে না ভারত। ২০১৪ সালে একইভাবে চীনের দুটি সাবমেরিন হামবানতোতা বন্দরে এসেছিল। ওই সময় শ্রীলঙ্কার অনুমতি না নিয়েই বন্দরে থামে সাবমেরিনগুলো। 

অর্থনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে যাওয়া শ্রীলঙ্কার কাছ থেকে ঋণ বাবদ বহু অর্থ পাওনা চীনের। তাই চীন প্রশ্নে শ্রীলঙ্কার এই বাধ্যবাধকতার দিকটি মাথায় রেখেই ভারত জানিয়েছে, ‘দেশের নিরাপত্তাকে সফলভাবে রক্ষা করতে সক্ষম ভারত।’

 

AR/shimul