চীনে ৬ দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

প্রকাশিত: ০৫-০৮-২০২২ ২১:০৩

আপডেট: ০৫-০৮-২০২২ ২১:০৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আবারও শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ। ইরাকের ১০টি প্রদেশের তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। প্রদেশগুলোতে একদিনের সরকারী ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। চলতি বছর ফ্রান্সে তৃতীয় দফা তাপদাহ শুরু। আগামী সপ্তাহে দেশটিতে সর্বোচ্চ তাপ সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া বিভাগ। চীনের কয়েকটি প্রদেশে ৬১ বছরের রেকর্ড ভেঙ্গেছে জুলাই মাসের তাপদাহ।

তাপদাহে বিপর্যস্ত মধপ্রাচ্যের দেশ ইরাক। বৃহস্পতিবার দেশটির প্রায় ১০টি প্রদেশের তাপমাত্রা ৫০ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যায়। অস্বাভাবিক তাপদাহে ওইসব প্রদেশে সরকারি অফিসে একদিনের ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

চীনের হেবেই, ইউনান ঝেজিয়াং ও সিচুয়ান প্রদেশে জুলাই মাসে ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে , যা ৬১ বছর মধ্যে জুলাই মাসে চীনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

চীনের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, তাপদাহের ফলে ঝেজিয়াং ও সাংহাইতে বিদ্যুৎ খরচ বেড়েছে।  জিয়াংসু ও সিচুয়ানসহ অন্যান্য প্রদেশে হিটস্ট্রোক একটি সাধারণ ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাপপ্রবাহটি আগস্ট মাস পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া বিভাগ।

চলতি বছর ফ্রান্সে তৃতীয়বার তাপদাহ শুরু হয়েছে। দেশটিতে বুধবার ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। ২৬টি অঞ্চলে জারি করা হয়েছে তাপদাহের সতর্কতা। আগামী সপ্তাহে দেশটি সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করতে পারে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া বিভাগ।

বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা ডব্লিউএইচও এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৯৮ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী তাপপ্রবাহে এক লাখ ৬৬ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। ২০৩০ থেকে ২০৫০ সালের মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে অপুষ্টি, ম্যালেরিয়া, ডায়রিয়া এবং তাপজনিত কারণে বিশ্বব্যাপী আরও আড়াই লাখ মানুষ মারা যেতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

 

aleya/shimul