উৎপাদক পর্যায়েও কাঁচা মরিচের দাম চড়া

প্রকাশিত: ১৪-০৮-২০২২ ১১:১৪

আপডেট: ১৪-০৮-২০২২ ১৫:২৪

নওগাঁ সংবাদদাতা: দেশের উৎপাদন এলাকাগুলোতেও কাঁচা মরিচের দাম বেশ চড়া। নওগাঁয় পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ প্রায় ২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। মরিচের দাম বেশি পাওয়ায় খুশি চাষীরা। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এসব মরিচ চলে যাচ্ছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম সহ কয়েকটি জেলায়। তবে, গাছের পাতা মরা রোগে আক্রান্ত হওয়ায় চিন্তার ভাজ পড়েছে চাষীদের কপালে। 

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার মোমিনপুর কাঁচা মরিচের বাজারের সুখ্যাতি রয়েছে দেশজুড়ে। প্রতিদিন বেলা ১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ বাজারে বেচা কেনা চলে। চাষীরা বিভিন্ন এলাকা থেকে মরিচ সাইকেল, মোটরসাইকেল ও ভ্যানে করে নিয়ে আসে এই হাটে।    

স্থানীয় চাষীরা জানালেন, গত ১মাস আগেও এই বাজারে মরিচ ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে। এখন বিক্রি হচ্ছে ১৮০ থেকে ১৯০ টাকা দরে। বৃষ্টি কম হওয়ায় এ বছর উৎপাদন কমে গেছে, তবে বেড়েছে দামও। ভালো দাম পাওয়ায় খুশি চাষীরাও। 

ব্যবসায়ীরা জানালেন, কিছুদিন আগেও প্রতিদিন হাটে প্রায় ১৩শ মণ মরিচ বিক্রি হতো। যার বাজার মূল্য ছিলো ৭৮ লাখ টাকার মতো। বর্তমানে বাজারে আসছে ৬০০ মণ মরিচ। কিন্তু বিক্রি হচ্ছে ৫০ লাখ টাকায়। উৎপাদন কম হলেও, দাম ভালো পাওয়ায় লাভ হচ্ছে বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।  

বৃষ্টি কম হওয়ায় মরিচ চাষে সমস্যা হলেও বর্তমানে সেচ দিয়ে মরিচের উৎপাদন অব্যাহত রাখা হয়েছে।  উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানান নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা অরুন চন্দ্র রায়।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে- এ বছর জেলার ১১টি উপজেলায় ১ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে মরিচের আবাদ হয়েছে। 

 

afroza/joy