ডিজেলের উত্তাপ আমন চাষেও পড়েছে

প্রকাশিত: ১৪-০৮-২০২২ ২০:৪৬

আপডেট: ১৪-০৮-২০২২ ২০:৪৬

ফাহিম মোনায়েম: বৃষ্টির অভাবে এবারের আমন চাষে যখন কৃষকদের জমিতে সেচের জন্য খরচের বাড়তি টাকা গুনতে হয়েছে, তখন ডিজেলের দাম বৃদ্ধি মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে এসেছে। প্রতি লিটার ডিজেলের দাম ৮০ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ১১৪ টাকা। ফলে সেচ ও চাষের খরচও আমনের এই মৌসুমে হঠাৎ বেড়ে গেছে। ফলে ইউরিয়া সারের দাম বাড়ার পাশাপাশি ডিজেলের দাম বাড়ায়আমনের চাষে বিচিত্র নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে শঙ্কিত চাষিরা।

সম্প্রতি ব্যাপক হারে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি আলোচনার শীর্ষে, এর প্রভাবও অনেক। বৃষ্টি কম হওয়ায় আমন চাষে এবার সেচ নির্ভরতা বেড়েছে কৃষকদের। এই সেচের জন্য ডিজেলও লেগেছে বেশি। আর ঠিক এই সময় ব্যাপক হারে ডিজেলের দাম বাড়ায় কৃষকের সেচের খরচ অনেক বেড়ে যায়। 

শুধু এই আমন মৌসুমেই নয়, আসছে শুষ্ক মৌসুমে সেচ নির্ভর বোরো ধানের আবাদে ডিজেলের দাম বাড়ার কারণে সেচের খরচ অনেক বাড়বে। সার্বিকভাবে কৃষিতে খরচ বেড়ে যেতে থাকবে বলে আশঙ্কায় আছে কৃষকরা। 

শুধু সেচেই নয়, জমিতে হালচাষের জন্য জোড়া বলদের পরিবর্তে পাওয়ার টিলারের ব্যবহারেও লাগে ডিজেল। ফলে আমনের জন্য জমি প্রস্তুতে ব্যাপকভাবে পাওয়ার টিলারের ব্যবহারেওকৃষককে গুনতে হচ্ছে বাড়তি টাকা। 

কৃষিতে ক্রমাগত খরচ বাড়ায় দশকের পর দশক ধরে বহু কৃষক চাষাবাদ ছেড়েছে। কারণ কৃষকের আয় বাড়েনি, অনেক ক্ষেত্রেচাষের খরচ তোলাও কঠিন হয়েছে। কৃষি অর্থনীতির বিশ্লেষকের ধারণা-কৃষকের ওপর সার, সেচ, জ্বালানী তেলের খরচ নিয়ে চাপ যত বাড়তে থাকবে কৃষক ততই ধান উৎপাদনের প্রতি নিরুৎসাহিত হতে পারে। ফলে সার্বিকভাবে ধানের চাষ নিয়ে দুশ্চিন্তাও বাড়তে পারে। 

আমনের দুশ্চিন্তার পিঠেই যখন বোরো চাষ নিয়েও শঙ্কার কথা উঠছে, তখন সেসব মোকাবেলার আগাম প্রস্তুতি চান পর্যবেক্ষকরা।

 

FM/shimul