গাইবান্ধা-৫ উপ-নির্বাচন : প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

প্রকাশিত: ১৭-০৮-২০২২ ০৯:১৩

আপডেট: ১৭-০৮-২০২২ ০৯:৪০

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: তফসিল ঘোষণা না হলেও নির্বাচনী উত্তাপ বাড়ছে গাইবান্ধার ফুলছড়ি ও সাঘাটায়। জাতীয় সংসদের প্রয়াত ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুতে স¤প্রতি শূন্য হয় গাইবান্ধা-৫ আসন। আগামী অক্টোবরের মধ্যেই এই আসনে উপ-নির্বাচনের কথা রয়েছে। এজন্য এখন থেকেই দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌঁড়ঝাপ শুরু করেছেন বিভিন্ন দলের নেতারা, চালাচ্ছেন গণসংযোগও।

আগামী ২০শে অক্টোবরের মধ্যে গাইবান্ধা-৫ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। পহেলা সেপ্টেম্বর ঘোষণা হতে পারে তফসিল। তবে, এর আগেই নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুর করেছে ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলা নিয়ে গঠিত এই নির্বাচনী এলাকায়। বিএনপির পক্ষ থেকে কাউকে প্রচারণায় দেখা না গেলেও আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশিরা দিন-রাত গণসংযোগ করছেন।

দীর্ঘদিন থেকে এ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহমুদ হাছান রিপন। সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার দলীয় নেতাকর্মীদের সংগঠিত করে কাজ করছেন তিনি।

নৌকা প্রতীকের জন্য জনসংযোগ করছেন সদ্য প্রয়াত ডেপুটি স্পিকারের মেয়ে ফারজানা রাব্বী বুবলিও। চলতি বছর আওয়ামী লীগে যোগ দিলেও বাবার ইমেজকে কাজে লাগিয়ে তিনিও চাচ্ছেন এ আসনের মনোনয়ন।  এছাড়াও মনোনয়ন পেতে মাঠে আছেন ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি.এম. পারভেজ সেলিম।

আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী মাঠে সরব থাকলেও একসময় জাতীয় পার্টির দূর্গ হিসেবে পরিচিত এ আসনে লাঙ্গল প্রতীক পেতে একক প্রার্থী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন সাঘাটা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি গোলাম শহীদ রঞ্জু।

তবে এলাকার ভোটার ও দলীয় নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা, ব্যক্তি দেখে নয়, এলাকার উন্নয়নে কাজ করবেন এমন ব্যক্তিকেই মনোনয়ন দেবে দলগুলো।

গত ২২শে জুলাই দিবাগত রাতে যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া মৃত্যুবরণ করলে তার আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

 

MBK/joy