ডিমের দাম বাড়িয়ে ব্যবসায়ীদের বাড়তি মুনাফা

প্রকাশিত: ২২-০৮-২০২২ ২০:০৩

আপডেট: ২২-০৮-২০২২ ২০:৫৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: অস্বাভাবিক হারে ডিমের দাম বাড়িয়ে আট-দশদিনের মধ্যে ৫শ’ কোটি টাকা বাড়তি মুনাফা করেছে কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ীরা। এমন তথ্য জানিয়েছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। এফবিসিসিআইয়ের সভায়, এই সিন্ডিকেটকে চিহ্নিত করে মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর দায়পুরো ব্যবসায়ী সমাজ নিবে না বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী নেতারা।

সম্প্রতি দেশের বাজারে জ¦ালানি তেলের দাম বাড়ানোর পরই হঠাৎ ডিমের বাজার অস্থির হয়ে উঠে। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে খুচরা বাজারে প্রকারভেদেফার্মের মুরগির এক ডজন ডিমের দাম ১৭০ টাকায় পৌঁছায়। দামের লাগাম টানতে মাঠে নামে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। অভিযানের পর এখন সেই ডিমের দাম ১৩০ টাকায় নেমে আসে।

ডিমের দাম হঠাৎ বেড়েযাওয়ার কারণ জানতে ডিম ব্যবসায়ীদের নিয়ে সোমবার ফেডারেশন ভবনে মত বিনিময় সভার আয়োজন করে ব্যবসায়ীদের শীর্র্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই।দাম বাড়ার দায় পরস্পরের উপর চাপান পাইকারী ও খুচরা ডিম ব্যবসায়ীরা।

ক্যাবের তথ্যমতে, সিন্ডিকেট করে সপ্তাহের ব্যবধানে ৫শ কোটি টাকা বাড়তি মুনাফা করেছে ডিম ব্যবসায়ীরা। এই অসৎ সিন্ডিকেটেরে বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানালেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরেরমহাপরিচালক এ এইচ এম শফিকুজ্জামান।

কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর দায় পুরো ব্যবসায়ী সমাজ নেবে না বলে জানিয়েছে এফবিসিসিআ্ই এরসহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু।

সুযোগ পেলেই অযৌক্তিক হারে অতিরিক্ত মুনাফা না করার পরামর্শ দিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি।

 

Tanzila/nasir