সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ছুটির নীতিমালা নেই

প্রকাশিত: ০১-০৯-২০২২ ১৪:১১

আপডেট: ০১-০৯-২০২২ ১৪:৫৬

রীতা নাহার: সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে উচ্চশিক্ষার জন্য বছরে কোন বিভাগের কতজন শিক্ষক উচ্চশিক্ষায় বিদেশে যাবেন- তার কোনও নির্দেশনা নেই নীতিমালায়। তারওপর শিক্ষাছুটিতে যাওয়া শিক্ষকরা দেশে না ফেরায় তৈরি হচ্ছে নানা সংকট, ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান। শিক্ষকদের দেশে ফিরে না আসার প্রবণতা বন্ধে প্রনীত হচ্ছে নতুন নীতিমালা।

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়ার মতো উন্নত দেশে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার জন্য বৃত্তি নিয়ে শিক্ষাছুটিতে গিয়ে দেশে ফেরেন না সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষক। ব্যক্তিগত, পারিবারিক কারণে কিংবা উন্নত জীবনের হাতছানিতে তারা সেখানেই থেকে যান। 

শিক্ষাবিদরা বলেন, দীর্ঘ অভিজ্ঞতা আর প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক তৈরি হন। দেশের বাইরে গিয়ে এভাবে তারা যদি ফিরে না আসেন এর নেতিবাচক প্রভাব যে কেবল বিশ্ববিদ্যালয়েই পড়বে তা নয়, দেশের মেধা পাচারের কারণে বাড়বে পরনির্ভরশীলতা।

একটা বিভাগের কিংবা একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের কতজন শিক্ষক একই সময়ে দেশের বাইরে উচ্চশিক্ষার জন্য যেতে পারবেন এমন কোন নীতিমালাও নেই। শিক্ষকদের উচ্চশিক্ষা, গবেষণাসহ বিদেশে যাওয়ার বিষয়ে শৃংখলা আনতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য একটি নীতিমালা’২০২২ করছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। 

শিক্ষকদের বিদেশে থেকে যাওয়ার এ প্রবণতা কমাতে দেশেও উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্র তৈরি করার পাশাপাশি  শিক্ষকদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর সুপারিশ সংশ্লিষ্টদের।

KNR/sharif