‘ইভিএম নিয়ে ইসি নিবিড় পর্যালোচনা করেছে’

প্রকাশিত: ০৫-০৯-২০২২ ১৮:৪৭

আপডেট: ০৫-০৯-২০২২ ২১:১০

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব বিবেচনায় ভোটে ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। 

সোমবার (৫ই সেপ্টেম্বর) আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে ধারাবাহিক সংলাপের অংশ হিসেবে আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি -জেপি ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির সাথে সংলাপ শেষে একথা বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

সিইসি বলেন, ইভিএম নিয়ে ইসি নিবিড় পর্যালোচনা করেছে। ইভিএমে কারচুপি হয় এমন কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। কারণ, ইভিএমের বেশিরভাগ পার্টস আসবে বিদেশ থেকে।

অংশগ্রহণমূলক নিবাচনের জন্য সকল অংশীজনের সহযোগিতা চেয়ে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, নির্বাচনে সব দলের সক্রিয় অংশগ্রহণ চায় ইসি। বিএনপি অংশ নিলে আরো গ্রহণযোগ্য হবে ভোট। তবে ইসির একার পক্ষে ভালো নির্বাচন আয়োজন সম্ভব নয়। এজন্য রাজনৈতিক দলসহ সকল অংশীজনের সহযোগিতা প্রয়োজন।

তবে কাউকে ধরে বেধে নির্বাচনে আনা হবে না বলেও জানান সিইসি। তিনি বলেন, সংলাপে উঠে আসা রাজনৈতিক দলগুলোর দাবি সরকারকে অবহিত করা হয়েছে। 

ভোটার তালিকার বিষয়ে তিনি বলেন, ভোটার তালিকা আগামী বছরের মার্চে চূড়ান্তভাবে প্রকাশ করব। রোডম্যাপ দুই সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্তভাবে অবহিত করতে পারব।

আগামী সংসদ নির্বাচনের কর্মপন্থা ঠিক করতে ১৭ই জুলাই থেকে ৩১শে জুলাই পর্যন্ত সংলাপে অংশ নিতে ৩৭টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলো ইসি, তবে মতবিনিময়ে অংশ নিয়েছে এপর্যন্ত ২৮টি রাজনৈতিক দল।

 

rocky/shimul