পিবিআই প্রধানের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন খারিজ

প্রকাশিত: ২৫-০৯-২০২২ ১৬:০৭

আপডেট: ২৫-০৯-২০২২ ১৬:১১

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : রিমান্ডে নির্যাতনের অভিযোগে পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদারসহ ৬ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাবেক এসপি বাবুল আক্তারের করা মামলার আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আদালত। 

তবে বাবুল আক্তারের আইনজীবী গোলাম মাওলা মুরাদ জানান, উচ্চ আদালতে যাবেন তারা। 

রবিবার (২৫শে সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ জেবুন্নেসার আদালত এ মামলার আবেদন খারিজ করে দেন। এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর পি বি আই হেফাজতে থাকাকালীন  নির্যাতনের অভিযোগে পিবিআই  প্রধান বনজ কুমার মজুমদার, সংস্থাটির চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের এসপি নাজমুল হাসান, চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটের এসপি নাইমা সুলতানা, পিবিআইয়ের সাবেক পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা ও এ কে এম মহিউদ্দীন সেলিম এবং সংস্থাটির চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের পরিদর্শক কাজী এনায়েত কবিরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন পুলিশের সাবেক এসপি ও মিতু হত্যা মামলায়  গ্রেফতার তার স্বামী বাবুল আক্তার। ২০২১ সালের ১০ মে থেকে ১৭ মে পর্যন্ত পিবিআই চট্টগ্রাম জেলা ও মেট্রো অফিসে তার উপর নির্যাতন করা হয় বলে অভিযোগ করেন বাবুল আক্তার। আদালত এ ব্যাপারে আদেশের জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন।  

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় গুলি ও ছুরিকাঘাতে  খুন হন সাবেক এসপি বাবুলের স্ত্রী মাহমুদা মিতু।  স্ত্রী খুনের ঘটনায় নগরীর পাচলাইশ থানায় হত্যা মামলা করেন বাবুল। ডিবির হাত ঘুরে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে সেই মামলার তদন্তভার পড়ে পিবিআই এর ওপর। ২০২১ সালের ১১ মে বাবুল আক্তারকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পিবিআই। তদন্তে বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা পায় তদন্তকারী সংস্থা। ২০২১ সালের ১২ মে ওই মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেয় পিবিআই। একইদিন এই হত্যাকান্ডের মূল চক্রান্তকারী বাবুল, পরকীয়া সম্পর্কের কারণে সে তার স্ত্রীকে হত্যা করেছ এমন অভিযোগে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় জামাতা বাবুল আক্তারসহ ৮ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন মিতুর বাবা মোশারফ হোসেন।

 

afroza/sanchita