'রহিমাকে অপহরণ ও উদ্ধারের ঘটনা সাজানো!'

প্রকাশিত: ২৭-০৯-২০২২ ১৫:৫১

আপডেট: ২৭-০৯-২০২২ ১৫:৫১

খুলনা সংবাদদাতা : খুলনা নগরীর দৌলতপুর থানার মহেশ্বর পাশা এলাকার রহিমা বেগম অপহরণ, আত্মগোপন ও উদ্ধার ঘটনা সাজানো নাটক বলে দাবি করেছেন এ মামলায় গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের পরিবার। আজ মঙ্গলবার (২৭শে সেপ্টেম্বর)  খুলনা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যরা। 

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে মালিহা মহিউদ্দীন মাহি বলেন, রহিমা উদ্ধার হওয়ার পর ১৬ ঘন্টা মুখ খোলেনি চুপ করেছিল। পরে নিজ মেয়েদের সাথে সাক্ষাতের পর নিজেকে অপহরণ করা হয়েছে বলে জানায়। রহিমা বেগম আরও বলে তাকে গুম করে রাখা হয়েছিল, সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়া হয়েছে, যা তাদের নাটকের আরেকটি অংশ। রহিমা বেগম প্রতিবেশিদের শায়েস্তা করতে মরিয়মসহ অন্যরা নানা নাটক করছে বলেও জানানো হয়। 

রহিমা বেগম গত ২৭শে  আগস্ট নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় রহিমার মেয়ে আদুরি আক্তার থানায় মামলা করলে পুলিশ মোহাম্মদ মহিউদ্দীন, গোলাম কিবরিয়া, রফিকুল ইসলাম, মোহাম্মিদ জুয়েল ও হেলাল শরীফকে গ্রেফতার করে। গত ২৪শে সেপ্টেম্বর রহিমা বেগমকে ফরিদপুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

kanij/sharif