'খাদ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করলে কঠোর ব্যবস্থা'

প্রকাশিত: ০২-১১-২০২২ ১৭:৫৮

আপডেট: ০২-১১-২০২২ ২১:২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশে খাদ্যের পর্যাপ্ত মজুত আছে। অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে না পারে সেজন্য নিয়মিত বাজার ও গুদাম মনিটরিং অব্যাহত রয়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদের ২০তম অধিবেশনে আজ প্রশ্নোত্তরে এসব কথা বলেন, সংসদ নেতা শেখ হাসিনা। এ সময় দেশের সংকটকে পুঁজি করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের প্রবণতা বাদ দিতে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

স্পিকার ডক্টর শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বুধবার অনুষ্ঠিত হয় একাদশ জাতীয় সংসদের ২০তম অধিবেশনের চতুর্থ বৈঠক। 

দিনের কার্যসূচী অনুযায়ী অধিবেশনের শুরুতেই নির্ধারিত ৩০মিনিট প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

গণফোরাম সদস্য মোকাব্বির খানের প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, খাদ্যের মজুত পর্যাপ্ত রয়েছে। আমদানী করা চাল ও গম দেশে আসতে শুরু করেছে। এ সময় রাশিয়া- ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী নিত্যপণ্যের উর্দ্ধমূল্য ও মূল্যস্ফীতির সংকট থেকে উত্তরণে সরকারের নানামুখী পদক্ষেপ তুলে ধরেন তিনি। 

এক প্রশ্নের জবাবে সংসদ নেতা বলেন, দেশের সংকটেও উদ্বিগ্ন না হয়ে রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে কেউ কেউ। ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের প্রবণতা বাদ দিয়ে গণমানুষের উন্নয়নে কাজ করতে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের কষ্ট লাঘব করতে যা প্রয়োজন সরকার তা করবে। 

দেশে খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে সবার প্রতি আহ্বান জানান সংসদ নেতা শেখ হাসিনা। 

 

AR/shimul