বিলুপ্তির পথে রাজবাড়ীর ঐতিহ্যবাহী তাঁত

প্রকাশিত: ০৩-১১-২০২২ ০৮:৩৭

আপডেট: ০৩-১১-২০২২ ০৯:৫১

রাজবাড়ী সংবাদদাতা: রাজবাড়ীতে বিলুপ্তির পথে তাঁত শিল্প। উপকরণের দাম বৃদ্ধি, পাওয়ার লুমে তৈরি বস্ত্রের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকতে না পারাসহ নানা কারণে বন্ধ হয়ে গেছে অনেক তাঁত। এতে বেকার হয়ে পড়েছে অনেকে। অনেকেই করেছেন পেশার পরিবর্তন।

আগে দিনের আলো ফোটার আগেই জেগে উঠতো রাজবাড়ীর তাঁত পল্লী। শোনা যেত তাঁত বুননের শব্দ। হাতে বোনা তাঁতের সাথে পাল্লা দিয়ে চলতো পাওয়ার লুমও। মাঝে মাঝেই শোনা যেত তাঁতীদের উচ্চ কণ্ঠে ঘুম তাড়ানি গানের সুর। সেখানে এখন কষ্টের সুর, সুনসান নিরবতা। 

রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার চরসিলোকা, বেলগাছি, সরিষাডাঙ্গাসহ ১২টি গ্রামে দেড় হাজারেরও বেশি তাঁতকল ছিল। বিপুল সংখ্যক শ্রমিক এই পেশায় নিয়োজিত ছিল। বর্তমানে তাঁত শিল্পে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় উৎপাদন খরচ বেড়েছে কয়েকগুন। সেইসাথে মেশিনের তৈরি পণ্য সামগ্রী বাজারে আসায় লোকসান গুনতে হচ্ছে তাঁতীদের। 

তাঁতশিল্প টিকিয়ে রাখতে তাঁতীদের সব ধরনের সহযোগীতা করার আশ্বাস দিলেন, বিসিকের এই কর্মকর্তা। রাজবাড়ী জেলা পরিসংখ্যান অফিসের তথ্য মতে, ২০১৮ সালের তাঁত শুমারী অনুযায়ী এই জেলায় তাঁতী ছিলো ৩ হাজার ৪৮৮ জন।

kanij/sharif