বন্ধ হচ্ছে সিবিসি'র বেইজিং ব্যুরো

প্রকাশিত: ০৩-১১-২০২২ ১৫:৪২

আপডেট: ০৩-১১-২০২২ ১৫:৪২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কানাডার পাবলিক ব্রডকাস্টা সিবিসি'র বেইজিং ব্যুরো বন্ধ করে দিচ্ছে।সিবিসি বলেছে যে, তারা চীনে স্থায়ী সংবাদদাতা হিসাবে কাজ করার জন্য সাংবাদিকদের ভিসা পাচ্ছেন না। ফলে ব্যুরো বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

কানাডিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (সিবিসি) ঘোষণা করেছে, এটি চার দশকেরও বেশি সময় পর চীনে তার ব্যুরো বন্ধ করছে, বেইজিংয়ে তারা সাংবাদিকদের কাজের ভিসার জন্য বছরের পর বছর অপেক্ষা করেও পাচ্ছেন না। 

এডিটর-ইন-চিফ ব্রোডি ফেনলন বুধবার একটি ব্লগ পোস্টে বলেছেন, সিবিসির ফরাসি-ভাষা পরিষেবা, রেডিও-কানাডা ইনফো, তাদের বেইজিং সংবাদদাতার জন্য ২০২০ সালের অক্টোবরে ভিসার জন্য আবেদন করেছিল।

"মন্ট্রিলে চীনা কনস্যুলেটের সাথে অসংখ্য আদান-প্রদান এবং গত দুই বছর ধরে বৈঠকের জন্য অনুরোধ করা সত্তেও এখনও কোন ভিসা পায়নি। তিনি বলেন, চীনের রাজধানীতে কোভিড-১৯ মহামারী শুরু হওয়ার পর সিবিসির সংবাদদাতা কানাডায় ফিরে যান। তিনি আর ফিরে আসেনি।

যদিও কোন বহিষ্কার বা প্রকাশ্য বিবৃতি ছিল না, আমরা আমাদের সাংবাদিকদের সেখানে স্থায়ী সংবাদদাতা হিসাবে কাজ করার জন্য ভিসা পাইনি। যখন আমরা সহজেই অন্য কোন দেশে অন্য কোথাও ব্যুরো স্থাপন করতে পারি, যা সাংবাদিকদের স্বাগত জানায় এবং সাংবাদিকতাকে সম্মান করে তখন একটি খালি ব্যুরো রাখার কোন মানেই হয় না’ বলে মন্তব্য করেন ফেনলন। 

জানুয়ারির শেষের দিকে প্রকাশিত চীনের ফরেন করেসপন্ডেন্টস ক্লাবের একটি বার্ষিক জরীপ এই উপসংহারে পৌঁছেছে যে দেশটিতে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা 'দুর্দান্ত গতিতে' অবনতি হচ্ছে। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস, একটি গ্লোবাল মিডিয়া, গতবছরও সতর্ক করেছিল যে চীন ইন্টারনেট সেন্সরশিপ, নজরদারি এবং প্রচারকে "অভূতপূর্ব পর্যায়ে" নিয়ে যাচ্ছে।

Prottay/sharif