মিশরে বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন শুরু

প্রকাশিত: ০৬-১১-২০২২ ২০:০০

আপডেট: ০৬-১১-২০২২ ২০:০৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জলবায়ু বিষয়ক বিশ্ব সম্মেলন কপ-টুয়েন্টি সেভেন শুরু হয়েছে আজ (রোববার ৬ নভেম্বর) থেকে। এবারের সম্মলনে গুরুত্ব পাচ্ছে বিশ্বে কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ কমানোর বিষয়টি। এদিকে, বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই-অক্সাইডের ঘণত্ব বিপজ্জনকহারে বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বের কিছু জায়গায় এর প্রভাব ক্যান্সারের চেয়েও মারাত্মক হতে পারে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ।

এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানিয়েছে, আগামী শতাব্দির মধ্যে বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত কারণে বাৎসরিক মৃত্যুহার, সড়ক দুর্ঘটনায় বার্ষিক মৃত্যুহারের ১০ গুণ হবে। অতিরিক্ত কার্বন ডাই অক্সাইডের কারণে মানুষের শ্বাসযন্ত্রের ক্রিয়াকলাপ চাপের মধ্যে পড়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। 

গত বছর অনুষ্ঠিত বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নেয়া দেশগুলো কার্বন নিঃসরণ কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছিলো। যদিও তাদের সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে তেমন কোন অগ্রগতি চোখে পড়েনি। ক্ষমেন বাস্তবতায় ১৯৮টি দেশের অংশগ্রহণে রোববার মিশরের শার্ম এল-শেখ শহরে শুরু হয়েছে এ বছরের বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন। এবারও বিশ্বনেতারা গুরুত্ব দিচ্ছেন কার্বনের পরিমাণ কমিয়ে আনার দিকেই।

এদিকে, চলতি বছর পাকিস্তানে নজিরবিহীন বন্যা, ইউরোপজুড়ে দাবানল, আফ্রিকায় দুর্ভিক্ষ এবং উত্তর আমেরিকায় খরাসহ জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহ চিত্র দেখেছে বিশ্ব। এই ভয়বহতা নিয়ে স¤প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি-ইউএনডিপি। যেখানে বলা হয়, মানুষের দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডের কারণে বায়ুমন্ডলের কার্বন ডাই অক্সাইডের ঘনত্ব বিপজ্জনক স্তরে পৌঁছেছে।

এর ফলে বিশ্বের কিছু জায়গায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ক্যান্সারের চেয়েও ক্ষতিকর হয়ে উঠতে পারে। বাংলাদেশের উদাহরণ টেনে প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, আগামী একশ বছরের মধ্যে বাংলাদেশে জলবায়ু সংক্রান্ত মৃত্যুহার, সড়ক দুর্ঘটনায় বার্ষিক মৃত্যুহারের ১০ গুণ হবে।

ইউএনডিপি জানিয়েছে, বায়ুমন্ডলে কার্বনের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় পৃথিবীর তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। এতে মানুষের উপর কী প্রভাব পড়ছে তারও একটি চিত্র তুলে ধরা হয়েছে ইউএনডিপির প্রতিবেদনে। এই উচ্চ তাপমাত্রা কার্ডিওভাসকুলার এবং শ্বাসযন্ত্রের ক্রিয়াকলাপকে চাপের মধ্যে ফেলছে। যার ফলে মৃত্যুর হার বাড়ছে। আগামীতে পাকিস্তান, সৌদি আরব ও ভেনিজুয়েলাসহ বেশ কয়েকটি দেশে এই হার বেশ বাড়বে বলে সতর্ক করেছে সংস্থাটি। 

এখন দেখার অপেক্ষা কপ-২৭ সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবেলায় কোন আশাব্যঞ্জক পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেন কি না বিশ্বনেতারা। 

SAI/sharif