পটুয়াখালীতে রাসমেলা উৎসব শুরু

প্রকাশিত: ০৭-১১-২০২২ ০৮:৫৪

আপডেট: ০৭-১১-২০২২ ০৯:২৯

পটুয়াখালী সংবাদদাতা: পটুয়াখালীর কলাপাড়া ও কুয়াকাটায় শুরু হয়েছে ঐতিহ্যবাহী রাস উৎসব ও মেলা। প্রতিবছর রাসপূর্ণিমা তিথিতে অনুষ্ঠিত হয় এই উৎসব। এসময় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সমুদ্রসৈকতে পূণ্যস্নান করেন। এদিকে, রাস উৎসবকে কেন্দ্র করে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের মণিপুরী গ্রামগুলোয় এখন সাজ সাজ রব। চলছে রাসনৃত্যের মহড়া। উৎসব উপভোগ করতে প্রতিবছর দেশ-বিদেশের হাজারও মানুষ জড়ো হন সেখানে। 

প্রতি বছরের মতো এবারেও পটুয়াখালীর কলাপাড়া ও কুয়াকাটায় শুরু হয়েছে পাঁচদিনের ঐতিহ্যবাহী উৎসব রাস মেলা। সনাতন ধর্মমতে, এই তিথিতে সমুদ্র স্নানের মাধ্যমে জাগতিক পাপ মোচন হয়, পূর্ণ হয় মনের বাসনা। 

উৎসব উপলক্ষে কুয়াকাটার রাধাকৃষ্ণ মন্দির ও কলাপাড়ার মদনমোহন সেবাশ্রম সেজে উঠেছে বর্ণিল সাজে। মঙ্গলবার সকালে সমুদ্র সৈকতে হবে পূণ্যস্নান। রাস উৎসব যেন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়, সেজন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছে প্রশাসন। আনন্দঘন পরিবেশে উৎসব উদযাপিত হবে বলেই আশাবাদী স্থানীয় সংসদ সদস্য। 

এদিকে, রাস উৎসব উপলক্ষে মৌলভিবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় রয়েছে বর্ণিল আয়োজন। উপজেলার ১৮টি মনিপুরী গ্রামে চলছে রাস নৃত্যের মহড়া। ধ্র“পদী নাচের শৈল্পিক মুদ্রা উপস্থাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন শিল্পীরা। 

আয়োজকরা জানালেন, ঐতিহ্য মেনেই উদযাপিত হবে মণিপুরী স¤প্রদায়ের রাস উৎসব। এ উপলক্ষ্যে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

কমলগঞ্জের মাধবপুর জোড়া মণ্ডপ ও আদমপুরে অনুষ্ঠিত এই রাস উৎসব শুধু মনিপুরী সম্প্রদায় নয়, উপভোগ করবে দেশ-বিদেশের হাজারও দর্শনার্থী।

 

kanij/shimul