ছাঁটাই কর্মীদের ফিরিয়ে আনছে টুইটার

প্রকাশিত: ০৭-১১-২০২২ ১৩:০৮

আপডেট: ০৭-১১-২০২২ ১৩:০৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ছাঁটাই করা কর্মীদের মধ্য থেকে অনেককেই ফিরিয়ে আনছে টুইটার। রোববার (৬ই নভেম্বর) এমন সিদ্ধান্তের কথা জানায় টুইটার কতৃপক্ষ। সামাজিক যোগাযোগের এই মাধ্যমটি কেনার পর শুক্রবার (৪ঠা নভেম্বর) প্রায় অর্ধেক কর্মী ছাঁটাই করে ইলন মাস্ক।

টুইটারের বর্তমান ব্যবস্থাপকরা বলছেন, অনেককেই ভুলবশত বাদ দেওয়া হয়েছিল। আবার কাজের ধরন ও অভিজ্ঞতা মূল্যায়নের আগেই অনেককে চাকরিচ্যুত করা হয়েছিল। যাদের সঙ্গে এমনটি ঘটেছে ও যাদের কর্মদক্ষতা ইলন মাস্কের নতুন পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়নে কাজে লাগতে পারে, তাদের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

গত ২৮শে অক্টোবর চার হাজার ৪০০ কোটি ডলারে টুইটার কিনে নেন ইলন মাস্ক। এরপর থেকেই প্রতিষ্ঠানটি ঢেলে সাজানোর কাজ শুরু করেন তিনি। সরিয়ে দেওয়া হয় প্রধান নির্বাহী (সিইও) পরাগ আগারওয়াল, প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা নেড সিগাল, আইন ও নীতিমালাবিষয়ক প্রধান বিজয়া গাড্ডেকে।

তাছাড়া প্রতিষ্ঠানটি থেকে পদত্যাগ করেন টুইটার বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ব্রেট টেলর, প্রধান গ্রাহক কর্মকর্তা ও বিজ্ঞাপন কমকর্তা সারাহ পারসোনেট, চিফ পিপল অ্যান্ড ডাইভারসিটি কর্মকর্তা ডালানা ব্র্যান্ড, জেনারেল ম্যানেজার নিক ক্যাল্ডওয়েল, প্রধান মার্কেটিং কর্মকর্তা লেসলি বার্ল্যান্ড, টুইটারের হেড অব প্রোডাক্ট জে সুলিভান ও গ্লোবাল সেলসের ভাইস প্রেসিডেন্ট জিন-ফিলিপ মাহেউ।

এদিকে, রোববার (৬ই নভেম্বর) ইলন মাস্ক জানান, কোনো ধরনের আগাম বার্তা ছাড়াই টুইটারের ‘ছদ্মবেশী’ ও ‘ভুয়া’ অ্যাকাউন্টগুলো স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

সম্প্রতি একটি টুইটে ইলন মাস্ক লেখেন, এর আগে কোনো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার আগে ব্যবহারকারীকে সতর্ক সংকেত পাঠাতো টুইটার। কিন্তু এখন যেহেতু অ্যাকাউন্ট যাচাইকরণ চলছে, সেহেতু কাউকে কোনো আগাম বার্তা দেওয়া হবে না।

 

MNU/shimul