নারীদের পার্কে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করলো তালেবান

প্রকাশিত: ১১-১১-২০২২ ১৪:০৩

আপডেট: ১১-১১-২০২২ ১৫:৪৬

আন্তর্জাতিক  ডেস্ক: আফগানিস্তানে এরই মধ্যে কোনঠাসা হয়ে পড়া নারীদের বাইরের চলা ফেরা আরো সীমিত হয়ে এলে। নতুন করে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে বিনোদোন পার্কসহ সব পাবলিক পার্কে নারীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে তালেবান। নতুন এই নিয়ম চালু করা হয়েছে চলতি সপ্তাহেই।

সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা নিয়ন্ত্রণে নেয়ার পর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি করছে দেশটির নারীদের বিরুদ্ধে। এবার রাজধানী কাবুলের পার্ক ও বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে নারীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করলো তালেবান সরকার। এমনকি আফগান নারীরা জিমেও যেতে পারবেন না।

বৃহস্পতিবার (১০ই নভেম্বর) দেশটির পূণ্য সম্প্রসারণ ও পাপ প্রতিরোধ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ আকিফ মোহাজের নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তালেবানের দাবি, দেশটির পার্কগুলোতে ইসলামি আইন অনুসরণ করা হচ্ছে না। ২০২১ সালে তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর নারীর অধিকার ও স্বাধীনতার  বিষয়গুলো কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

তালেবান বলছে, পার্কগুলোতে ইসলামিক আইন মানা হচেছ না। আকিফ জানান, নারী ও পুরুষ আলাদাভাবে চলছে না, নারীরা হিজাব পরছে না। একারণেই এখন এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞা সব আফগান নারীর জন্য।

এর আগে তালেবান সরকারের নিয়ম অনুযায়ী, আফগান নারীরা প্রতি সপ্তাহে তিন দিন পার্কে যেতে পারতেন। এই তিন দিন হলো রবিবার, সোমবার ও মঙ্গলবার। বাকী চারদিন পুরুষরা যেতে পারতেন। তবে এখন পুরুষ আত্মীয়-স্বজন বা অভিভাবকরা সঙ্গী হলেও নারীদের পার্কে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

বিনোদন পার্কগুলোতে অনেকেই সন্তানদের নিয়ে ঘুরতে বের হন। বিশেষ করে যেসব পার্কে বাচ্চাদের জন্য খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। তালেবানের এই নতুন নিষেধাজ্ঞা আপাতত শুধু কাবুলে বলবৎ থাকছে। তবে এর আগে দেখা গেছে, নারীদের ওপর যেসব নিষেধাজ্ঞা এসেছে পরে তা পুরো দেশে কার্যকর হয়েছে।

রয়টার্সের এক খবরে বলা হয়েছে, কাবুলের একটি পার্কের প্রবেশপথে একজন নারীকে দেখা গেছে, যাকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি এবং তিনি হতাশ হয়ে ফিরে গেছেন। নিরাপত্তার স্বার্থে নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক এক নারী তিনি রয়টার্সকে বলেন, ‘যখন একজন মা তার বাচ্চাদের সঙ্গে নিয়ে আসেন তখন অবশ্যই তাদের পার্কে প্রবেশ করতে দেওয়া উচিত। এই বাচ্চাগুলো ভালো কিছু দেখেনি, তাদের অবশ্যই খেলতে দিতে হবে এবং তাদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা করতে হবে’।

FR/sharif