চট্টগ্রামে লাইটার জাহাজ শ্রমিকদের ধর্মঘট

প্রকাশিত: ১১-১১-২০২২ ১৪:২০

আপডেট: ১১-১১-২০২২ ২১:০৪

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান ও পতেঙ্গা থানার ওসির প্রত্যাহার, চরপাড়া ঘাটের ইজারা বাতিলসহ পাঁচ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছেন লাইটারেজ জাহাজ শ্রমিকরা। আজ শুক্রবার (১১ নভেম্বর) সকাল ৬টা থেকে তারা ধর্মঘট শুরু করেন। এতে চট্টগ্রাম থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থানে পণ্য পরিবহন। 

বাংলাদেশ লাইটারেজ শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি মোহাম্মদ নবী আলম জানান, ‘চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যানকে প্রত্যাহার, লাইটারেজ জাহাজের শ্রমিকদের ওঠানামায় ব্যবহৃত চরপাড়া ঘাটের ইজারা বাতিল, পতেঙ্গা থানার ওসির অপসারণ, সাঙ্গু নদের মুখ খুঁড়ে লাইটারেজ জাহাজের নিরাপদ পোতাশ্রয় করা ও সার্ভেয়ার দিয়ে লাইটারেজ জাহাজের সার্ভে বহির্নোঙরে করার দাবিতে সকাল থেকে আমাদের কর্মবিরতি চলছে। কর্মবিরতির কারণে চট্টগ্রাম থেকে লাইটারেজ জাহাজে করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পণ্য পরিবহন ও পণ্য ওঠানামা বন্ধ রয়েছে। আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে।’

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) চট্টগ্রাম নগরীর বাংলাবাজার এলাকায় সর্বস্তরের নৌযান শ্রমিকদের ব্যানারে আয়োজিত সমাবেশে লাইটারেজ জাহাজের শ্রমিকরা কাজ বন্ধের ঘোষণা দেন।

লাইটারেজ শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা নবী আলম বলেন, গত তেসরা নভেম্বর চরপাড়া ইজারাদারের লোকজন কয়েকজন শ্রমিককে মারধর করেন। পুলিশ এ ঘটনায় কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে এ ঘাটের ইজারা বাতিলের দাবি জানালে তারাও কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

এর প্রতিবাদ হিসেবে চরপাড়া ঘাটের সামনে থেকে সব লাইটার জাহাজ পারকির চর এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। চায়নিজ ঘাট ব্যবহার করে পণ্য ওঠানামা শুরু করেন শ্রমিকরা। সেই ঘাটও বৃহস্পতিবার উচ্ছেদ করে দেয় বন্দর কর্তৃপক্ষ। 

afroza/sharif