চলমান সমস্যা মোকাবিলায় জাতিসংঘ ব্যর্থ- মোদি

প্রকাশিত: ১৫-১১-২০২২ ১৩:০২

আপডেট: ১৫-১১-২০২২ ১৩:০২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চলমান জি টুয়েন্টি সম্মেলনে ইউক্রেন ইস্যুর প্রসঙ্গ টেনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘আমাদের এটা মেনে নিতে কোন দ্বিধা করা উচিত নয় যে, জাতিসংঘ এসব সমস্যা মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছে। আর আমরা উপযুক্ত সংস্কার কর্মসূচি নিতে ব্যর্থ হয়েছি। তাই বিশ্ব এখন জি-২০ জোটের দিকে তাকিয়ে আছে। জি-২০ এখন আরও প্রাসঙ্গিক হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি বারবার বলছি, আমাদের একটা পথ খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের যুদ্ধবিরতি ও ইউক্রেনে গণতন্ত্রের পথে ফিরতে হবে। গত শতকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ বিশ্বে ভয়ংকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছিল। সেসময়ই বিশ্ব নেতারা শান্তির জন্য চেষ্টা করেছিলেন। এখন আমাদের পালা।’

চলতি বছর (২০২২) বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী গ্রুপ অব টোয়েন্টি বা জি-২০ জোটের শীর্ষ সম্মেলন হচ্ছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায়। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ছাড়া প্রায় সব শীর্ষনেতাই এ উপলক্ষে দেশটির বালিতে পৌঁছেছেন। সম্মেলনে যোগ দিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও পৌঁছেছেন সেখানে। আলোচনার ফাঁকে তিনি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রোঁর সঙ্গে একান্তে আলাপ করেছেন।

নরেন্দ্র মোদি তার বক্তৃতায় সাম্প্রতিক বিশ্বের নানা চ্যালেঞ্জগুলো তুলে ধরেন। জলবায়ু পরিবর্তন, ইউক্রেন সংঘাত, করোনা এবং বিশ্বের অর্থনীতিতে তার প্রভাব এসব নিয়েও কথা বলেন তিনি। 

তিনি বলেন, ‘বিশ্বের সব জায়গায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের অভাব দেখা দিয়েছে। প্রতিটি দেশের গরিব মানুষের অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। প্রতিদিনের জীবনযাপন তাদের কাছে সংগ্রামের মতো।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘এখন শান্তির জন্য সমবেত প্রয়াস জরুরি। আমি আশা করি, পরের বছর জি-২০ সম্মেলন যখন বুদ্ধ ও গান্ধীর পবিত্র ভূমিতে হবে, তখন আমরা সমবেতভাবে বিশ্বকে শান্তির বাণী শোনাতে পারব।’

উল্লেখ্য এবার (২০২২) জি-২০ জোটের চেয়ারম্যানের পদ পাবে ভারত। ফলে পরের বছর জি-২০ সম্মেলন ভারতে অনুষ্ঠিত হবে।

Adnan/sharif