কাতারে বিশ্বকাপ সামনে রেখে বেড়েছে মাদক পাচার

প্রকাশিত: ১৬-১১-২০২২ ১৯:০৭

আপডেট: ১৬-১১-২০২২ ১৯:০৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বকাপকে সামনে রেখে কাতারে বেড়েছে মাদাক পাচারের হিড়িক। অবৈধভাবে উপসাগরীয় দেশটিতে মাদকদ্রব্য পৌঁছানোর চেষ্টা করছে চোরাকারবারিরা। এরই মধ্যে কয়েকটি চালান ধরাও পড়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম পেনিনিসুলার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

পেনিনিসুলা জানায়, হামাদ বন্দর দিয়ে জর্দা জাতীয় অবৈধ তামাক পাচারের একটি প্রচেষ্টা নস্যাৎ করে দিয়েছে কাতারের সামুদ্রিক শুল্ক বিভাগ। খাদ্যসামগ্রীর একটি চালানে তল্লাশি চালিয়ে ১ হাজার ৩৩৮ ব্যাগ তামাক উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা মাদকদ্রব্যের ওজন প্রায় ১ হাজার ৬৭২ কিলোগ্রাম।

কয়েকদিন আগে হামাদ বন্দর কাস্টমস কর্তৃপক্ষ নারকেল ও লেবুর ভেতর লুকানো একই ধরনের মাদকের আরেকটি চালান জব্দ করেছিল।

জানা যায়, কাতারে অবৈধ দ্রব্য শনাক্ত করতে কাস্টমস কর্মকর্তাদের সর্বাধুনিক যন্ত্রসহ সবধরনের সহায়তা দেওয়া হয়। যাত্রীদের শারীরিক ভাষা বুঝতে এবং চোরাকারবারিদের নতুন নতুন কৌশল সম্পর্কে সচেতন করতে ক্রমাগত প্রশিক্ষণও পান তারা।

এবারের বিশ্বকাপ দেখতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ১২ লাখের বেশি ফুটবলপ্রেমী কাতারে যাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থীর কথা মাথায় রেখে ৫০ হাজার নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েন করছে উপসাগরীয় দেশটি। এর জন্য তারা মরক্কো, পাকিস্তান, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, ন্যাটোসহ বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে নিরাপত্তা সহযোগিতা চুক্তি সই করেছে।

বিশ্বকাপ উপলক্ষে কাতারে ৩ হাজার দাঙ্গা পুলিশ পাঠাচ্ছে তুরস্ক। আরও ১০০ জন বিশেষ পুলিশ কর্মকর্তা, ৫০ জন বোমা বিশেষজ্ঞ এবং ৮০টি প্রশিক্ষিত কুকুর পাঠানোরও ঘোষণা দিয়েছে তারা।

 

Mustafiz/shimul