হাসপাতালে রোগীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ২০-১১-২০২২ ১৬:২৪

আপডেট: ২০-১১-২০২২ ১৬:২৪

শেরপুর সংবাদদাতা : শেরপুরে হাসপাতালের ছয়তলার বারান্দা থেকে লাফ দিয়ে মধু চক্রবর্তী নামে এক রোগী আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার (১৯শে নভেম্বর) দিবাগত রাতে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট শেরপুর সদর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। মধু চক্রবর্তী নেত্রকোণা জেলার হীরণ চক্রবর্তীর ছেলে। তিনি পেশায় ধান-চাল ব্যবসায়ী ছিলেন। এক বছর ধরে বেকার ছিলেন তিনি।

হাসপাতাল ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, মধু চক্রবর্তী গত ১৭ই নভেম্বর শ্বাসকষ্ট, বমি ও পেট ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। শনিবার রাতে তার স্ত্রী পপি ভৌমিকের সঙ্গে ঝগড়া ও রাগারাগির এক পর্যায়ে হাসপাতালের ছয়তলার বারান্দা থেকে লাফ দেন। পরে আশপাশের লোকজন দ্রুত তাকে উদ্ধার করে জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে স্ত্রী পপি ভৌমিক জানায়, তার মাথায় একটু সমস্যা হয়েছিলো। রাতে সিগারেট কিনতে যেয়ে ভুল করে রাস্তা না চিনে ৬ তলার বারান্দা থেকে পড়ে যায়।

শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালের আরএমও মো. খায়রুল কবীর সুমন জানায়, ‘আমাদের হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হলে ৬ ছয় তলা থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করে স্বামী।’

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহাম্মেদ বাদল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রাতে স্বামী ও স্ত্রী মধ্যে ঝগড়া হলে এক পর্যায়ে হাসপাতালের ছয় তলার বারান্দা থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করে স্বামী। 

 

MBK/shimul