সংসদে বিরোধীতার মুখে ঋষি সুনাক

প্রকাশিত: ২৩-১১-২০২২ ১১:৪৫

আপডেট: ২৩-১১-২০২২ ১১:৪৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পূর্বসূরি লিজ ট্রাসের পথ ধরেই কিন্তু এর মধ্যেই নিজ দলের এমপিদের বিদ্রোহের মুখে পড়েছেন ঋষি সুনাক। যদিওবা ভারতীয় বংশোদ্ভূত কনজারভেটিভ পার্টির এই নেতা যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার মেয়াদ এখনো একমাসও হয়নি। সূত্র: ব্লুমবার্গ

হাউজবিল্ডিং (বাড়ি নির্মাণ) পরিকল্পনা সম্পর্কিত একটি বিল উত্থাপন করে সেটির ওপর ভোট আয়োজন করতে চেয়েছিলেন ঋষি সুনাক। নিজ দলের এমপিরাই এ বিল নিয়ে তার বিরুদ্ধে বিদ্রোহের ইঙ্গিত দিয়েছেন। ফলে আপাতত এটি থেকে সরে এসেছেন তিনি।

যুক্তরাজ্যে প্রতিবছর নতুন ৩ লাখ বাড়ি নির্মাণ করার একটি সরকারি পরিকল্পনা রয়েছে। ঋষি সুনাক চেয়েছিলেন, এটি কেন্দ্রীয়ভাবে পরিচালনা করতে এবং বাধ্যতামূলক করতে। তবে এ পরিকল্পনার বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়েছে তার নিজ দল কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যরা। সবমিলিয়ে ৫০ জন এমপি এ বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। যার মধ্যে রয়েছেন মন্ত্রীপরিষদের সাবেক আট সদস্য। আর নিজ দলের সদস্যরা বিদ্রোহ করার পর আপাতত এ পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক 

বিলটি নিয়ে আজ বুধবার (২৩শে নভেম্বর) যুক্তরাজ্যের সংসদে বিতর্ক হওয়ার কথা ছিল। এরপর আগামী সোমবার এর ওপর ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এমপিরা বিদ্রোহ করায় এই বিলের ওপর ভোট পিছিয়ে যাবে। এমনকি আগামী কয়েক সপ্তাহও এটি থমকে থাকতে পারে।  

এদিকে ঋষি সুনাকের পিছিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আবারও দেখাচ্ছে ‘বিদ্রোহী’ কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের সামলাতে তিনিও (ঋষি সুনাক) হিমশিম খাচ্ছেন। তারা কয়েক মাস ধরেই বিদ্রোহী মনোভাব দেখাচ্ছেন।

উল্লেখ্য ব্রিটেনের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস মাত্র ৪৪দিন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে গত ২০শে অক্টোবর পার্লামেন্টে সদস্যদের বিরোধীতার মুখে পদত্যাগে বাধ্য হন। এরপর ২৪ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন ভারতীয় বংশদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক ঋষি সুনাক।

 

Adnan/Bodiar