মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন গ্রাম পুলিশরা

প্রকাশিত: ২৪-১১-২০২২ ০৮:৫০

আপডেট: ২৪-১১-২০২২ ০৯:১১

ঝালকাঠি সংবাদদাতা: অর্থ কষ্টে দিন কাটছে ঝালকাঠির তিন শতাধিক গ্রাম পুলিশের। বছরের পর বছর নামমাত্র বেতনে কাজ করে যাচ্ছেন তারা। দ্রব্যমূল্য বেড়ে যাওয়ায় তারা এখন দিশেহারা। পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর দিন কাটছে গ্রাম পুলিশ সদস্যদের। 

রাতে সবাই যখন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন, তখন গ্রামবাসীর নিরাপত্তায় গ্রামের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ছুটে চলেন গ্রাম পুলিশরা। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও থানা পুলিশকে সহযোগিতা করেন তারা। এতো সব দায়িত্ব পালন করলেও তাদের ভাগ্য বদলায় না।

ঝালকাঠি জেলার ৩২টি ইউনিয়নে মহল্লাদার ও দফাদার মিলিয়ে ৩২০ জন গ্রাম পুলিশ রয়েছে। সরকারি ও উন্নয়ন খাত মিলিয়ে মহল্লাদারের বেতন মাসে সাড়ে ছয় হাজার টাকা আর দফাদারের বেতন সাত হাজার টাকা। এই বেতনও তারা পান তিন মাস পরপর। বর্তমানে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে গ্রাম পুলিশ।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি জানালেন, ইউনিয়ন পরিষদের অধিকাংশ কাজই করেন গ্রাম পুলিশরা। সেই অনুযায়ী, তাদের বেতন ভাতা খুবই কম। গ্রাম পুলিশদের বেতন বাড়ানোর দাবিও জানান তিনি।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জোহর আলী জানালেন, গ্রাম পুলিশদের বেতন বৃদ্ধি সরকারি সিদ্ধান্তের বিষয়, স্থানীয়ভাবে কিছু করার নেই।

জেলার প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে একজন দফাদার ও ন’জন মহল­াদার মিলিয়ে দশজন করে গ্রাম পুলিশ কর্মরত রয়েছেন।

kanij/sharif