যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বের সবচেয়ে দামী ওষুধের অনুমোদন

প্রকাশিত: ২৪-১১-২০২২ ১১:৪৫

আপডেট: ২৪-১১-২০২২ ১১:৪৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বায়োটেক কোম্পানি সিএসএল বেহরিংয়ের হিমোফিলিয়া বি জিন থেরাপির অনুমোদন মিলেছে। এই ওষুধের নাম 'হেমজেনিক্স'। ওষুধটির এক ডোজের দাম ৩৫ লাখ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ এর বাংলাদেশি মূল্য ৩৫ কোটি ৭০ লাখ ৮৮ হাজার ৫৫০ টাকার বেশি।

নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি দাবি করছে, এই ওষুধের মাত্র এক ডোজ নিলেই হিমোফিলিয়া রোগীরা পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠবেন। হিমোফিলিয়া এক ধরণের রক্তক্ষরণজনিত রোগ। যা বংশানুক্রমে বাহিত হয়। এই রোগে আক্রান্ত হলে একেবারে হালকা আঘাতে অথবা বিনা কারণেও রক্তক্ষরণ শুরু হতে পারে এবং রক্তজমাট বাঁধে না।

নতুন  আসা এই ওষুধটি আক্রান্ত রোগীর শরীরে মাত্র একবার প্রয়োগ করা হলে তা এক বছরের বেশি সময়ের মধ্যে ৫৪ শতাংশ রক্তপাত হ্রাস করতে পারে। হেমজেনিক্স নিয়ে চালানো বড় পরিসরের এক গবেষণায় এমন চিত্র দেখা গেছে।

এর আগে, ২০১৯ সালে শিশুদের মেরুদন্ডের ক্ষয়রোগের চিকিৎসার জন্য সুইস-মার্কিন ওষুধ কোম্পানি নোভার্টিস এজির জোলগেন্সমা নামের একটি ওষুধের অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। এই ওষুধটির দাম ২১ লাখ মার্কিন ডলার।

অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় যার মান দাঁড়ায় ২১ কোটি ৪২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা। এছাড়া এ বছরের প্রথম দিকে থ্যালাসেমিয়ার চিকিৎসায় ব্লু বার্ড বায়ো ইনক’র তৈরি জিনটেগো ওষুধের অনুমোদন দেওয়া হয়। এই ওষুধটির দাম ২৮ লাখ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় ২৮ কোটি ৫৬ লাখের বেশি।

প্রসঙ্গত যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপে প্রায় ১ কোটি ৬০ লাখ মানুষ হিমোফিলিয়া বি রোগে আক্রান্ত। বি’র তুলনায় হিমোফিলিয়া এ-তে আক্রান্ত রোগী প্রায় পাঁচগুণ বেশি।

Adnan/sharif