শহীদ ডা. মিলন দিবস আজ

প্রকাশিত: ২৭-১১-২০২২ ০৯:০৪

আপডেট: ২৭-১১-২০২২ ০৯:০৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: শহীদ ডা. মিলন দিবস আজ । ১৯৯০ সালের এই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন চলাকালে গুলিতে নিহত হন ডা. শামসুল আলম খান মিলন। সেই থেকে প্রতি বছর ২৭শে নভেম্বর শহীদ ডা. মিলন দিবস পালন করা হচ্ছে। 

ড. মিলন চিকিৎসকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতির কোষাধ্যক্ষ এবং ঢাকা কলেজের বায়োকেমিস্ট বিভাগের প্রভাষক ছিলেন।

শহিদ ডা. মিলন দিবস উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, ১৯৯০ সালে শহীদ ডা. মিলনের মতো আরো অনেকের আত্মত্যাগের বিনিময়ে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা লাভ করে। দেশের প্রতিটি গণতন্ত্রকামী মানুষ ডা. মিলনসহ সব বীর শহীদের অবদান চিরদিন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডা. মিলনের আত্মত্যাগ স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে নতুন গতি সঞ্চার করে। সেদিনই দেশে জরুরি আইন ঘোষণা করা হয়। কিন্তু জরুরি আইন, কারফিউ উপেক্ষা করে ছাত্র-জনতা মিছিল নিয়ে বারবার রাজপথে নেমে আসে। অবশেষে স্বৈরশাসকের পদত্যাগের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হয়।

দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালন করছে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন। এ উপলক্ষে আজ সকাল ৮টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ চত্বরে ডা. শামসুল আলম খান মিলনের সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতের কর্মসূচি পালন করে বিভিন্ন সংঘঠন। তা ছাড়া বিএমএসহ বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠন আলোচনা সভার আয়োজন করেছে।

 

 

 

 

 

FR/shimul