বটম ক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে মাছ চাষে সফলতা

প্রকাশিত: ০১-১২-২০২২ ১০:০৪

আপডেট: ০১-১২-২০২২ ১০:০৪

রাজবাড়ী সংবাদদাতা: রাজবাড়ীতে মাছ চাষ করা হচ্ছে বটম ক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে। এই পদ্ধতিতে পুকুরের তলদেশে জমে থাকা আবর্জনা পরিষ্কার করে মাছের দ্রুত বৃদ্ধি নিশ্চিত করা যায়। গোয়ালন্দ ফিশারিজ নামে একটি প্রতিষ্ঠান এই নতুন পদ্ধতিতে মাছ চাষ করছে। কম সময়ে বেশি লাভ হওয়ায় দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মাছ চাষের আধুনিক এই কৌশল।

এই নিয়মে মাছ চাষ করার ব্যাপারে পরামর্শ নিতে প্রতিদিন দূরদূরান্ত থেকে এই খামারে আসছেন আসছেন নতুন উদ্যোক্তারা। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বটম ক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে স্বাভাবিকের চেয়ে চার গুণ বেশি মাছ উৎপাদন করা সম্ভব।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার রিয়াজউদ্দিনপাড়ায় প্রায় ৩’শ বিঘা জমির উপর তৈরি করা হয়েছে ‘গোয়ালন্দ ফিশারিজ’। স্থানীয়দের কাছে এটি গোধূলী পার্ক হিসেবেই পরিচিত। যেখানে নতুন এক পদ্ধতি ‘বটম ক্লিন রেসওয়ে’র মাধ্যমে চাষ করা হচ্ছে বিভিন্ন জাতের মাছ।

এ পদ্ধতিতে পুকুরের তলদেশে জমে থাকা আবর্জনা পরিষ্কার হবে। আবার তৈরি হবে অক্সিজেন, যা মাছকে দ্রুত বাড়তে সহায়তা করবে। এখানে চারটি বটমক্লীন রেসওয়ে পুকুরের পাশাপাশি রয়েছে পদ্মা- যমুনা নামে দুইটি লেক। 

মাছ বিপননে ৩৫টি কৃত্রিম অক্সিজেন যুক্ত সংরক্ষণের জায়গা তৈরী করে এখানে স্থাপন করা হয়েছে নিজস্ব বিক্রয় কেন্দ্র। এছাড়া বিশাল আয়তনের এই প্রকল্পে রঙিন মাছের প্রদর্শনীসহ তৈরি করা হয়েছে পার্কের আবহ। ক্রেতারা জানান, স্বস্তিকর পরিবেশ ও স্বাস্থ্যসম্মত মাছ হওয়ায় তারা এখানে ক্রয় করতে আসেন। 

গোয়ালন্দ ফিশারিজের স্বাত্বাধিকারি জানান, মানুষ যেন টাটকা সুস্বাদু মাছ সুলভ মূল্যে ক্রয় করতে পারে সেজন্য গোধূলী বাজার নামে বিক্রয়কেন্দ্রটি স্থাপন করেছেন তিনি। মাছের সঠিক পরিচর্যায় এখানে প্রতিটি পুকুরের জন্য আলাদাভাবে শ্রমিক নিয়োগ করা আছে। সেইসাথে মাছের রোগবালাই নিয়ন্ত্রণে সার্বক্ষণিক নজরদারি রয়েছে। 

lamia/sharif