বিয়ে বাড়িতে সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত, বরসহ আটক ১২

প্রকাশিত: ০২-১২-২০২২ ১৯:১৫

আপডেট: ০২-১২-২০২২ ১৯:১৫

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা : কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় বিয়ে বাড়িতে কনের গহনা নিয়ে বর ও কনে পক্ষের সংঘর্ষে কনের দাদি নিহত হয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার কেদার ইউনিয়নের গোলেরহাট গ্রামে কনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম তহুরন নেছা।

কচাকাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মর্তূজা জানান, উপজেলার গোলেরহাট গ্রামের নুর জামালের মেয়ে জেসমিন আকতারের সঙ্গে ভুরুঙ্গামারী উপজেলার বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের ঘুণ্টিঘর এলাকার আলিফ উদ্দিনের ছেলে রাইসুল ইসলাম রিপনের বিয়ে ঠিক হয়। বৃহস্পতিবার রাতে খাবার শেষে কনে সাজাতে গিয়ে বর পক্ষের দেয়া গহনা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্ক সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় তা সংঘর্ষের রুপ নেয়। এসময় উভয় পক্ষের কয়েকজন আহত হয়। 

এ ঘটনায় গুরুতর আহত কনের দাদিকে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যায়। খবর পেয়ে রাতেই কচাকাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বরসহ ১২ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। 

(ওসি) গোলাম মর্তূজা জানান, এ ঘটনায় কনের বাবা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

 

Priyonty/Bodiar